টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Koneenica Banerjee: কিয়ার সঙ্গে ম্যাচিং ড্রেসে কনীনিকার মিষ্টি ফোটোশুট, প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটনাগরিক

টলিউডের অন্যতন জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্তমানে স্টার জলসাতে ‘আয় তব সহচরী’ ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্র দিয়ে অভিনয় জগতে কামব্যাক করছেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে টেলি ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত অভিনেত্রী। সদ্য এই ধারাবাহিক দিয়ে পর্দায় কামব্যাক করেছেন। ২০১৯ সাল থেকে টেলিভিশন থেকে কিছুদিনের জন্য ব্রেক নিয়েছিলেন অভিনেত্রাই। কারণ সেই বছর তাঁর ছোট্ট মেয়ে কিয়া অভিনেত্রীর কোল আলো করে আসে। মেয়েকে আদর করে ভালো নাম রাখেন অন্তঃকরণা।

কিয়ার জন্মের পর থেকে প্রথমদিকে কনীনিকা মেয়ের ছবি বা ভিডিও কিছুই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতেন না। কিন্তু কিয়া একটু বড় হওয়ার পর মেয়ের নানান সুন্দ্র মুহূর্ত ভাগ করে নেন অনুরাগীদের সঙ্গে।।একরত্তি কিয়া এখন দেখতে দেখতে অনেকটাই বড় হয়েছে। খুদে কিয়াকে নিয়ে প্রায়শই নানান ফটোশ্যুট সারেন অভিনেত্রী কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্প্রতি মা-মেয়ে ম্যাচিং করা লাল গাউনে ফটোশুট করেন। ক্যামেরার সামনে দুজনেই এক্কেবারে অনবদ্য। পুচকে কিয়া মাথায় বড় লাল ক্লিপও লাগিয়েছে। মা-মেয়ের ফটোশ্যুট দেখে মুগ্ধ সকল অনুরাগীরা। নেটবাসীরা প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছে তাঁরা।

এখানেই শেষ নয়, এবার আরো একই ভাবে লং গাউন ড্রেস আর একই রকম প্রিন্ট। এবারেও মা মেয়ে সেজেছেন একইভাবে। মা-মেয়ের একই রকম পোশাকে ফোটোশুট নজর কেড়েছে অনুরাগীদের। সদ্য সেই ফোটোশুটের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেছেন কনীনিকা। লং ড্রেস তাই তা একটু তুলে হাঁটলে বেশি ভালো হয় তা কিয়া এখন থেকেই বুঝে গিয়েছে। মায়ের মতোই এখন কিয়াও ফ্যাশ্ন সমন্ধে একটু একটু বুঝছে। তাই তো ফ্লোরাল ড্রেসের ঘের ধরে মায়ের মতোই ঘুরে নিচ্ছে নিজের মতো করে একপাক। এত বড় ভার্চুয়াল দুনিয়াতে কনীনিকার এই অনুরাগীদের আদর, স্নেহ এখন কিয়ারও সমানভাবে পায়। তাই মায়ের মতো মেয়ের এই সাজ দেখে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন।

ছোট্ট মেয়েকে বাড়িতে রেখে ফের ধারাবাহিকের শুটিং করা অভিনেত্রীর কাছে ছিল বেশ চ্যালেঞ্জিং। সেই প্রসঙ্গে কয়েক দিন আগে নিজের ইনস্টাগ্রাম লাইভে অভিনেত্রী বলেন, “অনেক বছর পর মেগা করাতে তিনি বেশ এক্সাইটেড। কিন্তু কিয়া বুড়িকে বাড়িতে রেখে শুটিং করার জন্য তাঁর এখনও মনের মধ্যে চাপ ছিল। কারণ কিয়া এখনো বড্ড ছোট। মাত্র দু বছর বয়স। এখন বাড়িতে ঢুকলেও কিয়া অভিনেত্রীকে শুভ রাত্রি বলে। মানে ওর ধারণা হয়ে গিয়েছে, মা শুধু ঘুমনোর সময় আসে। কিয়াকে সামলে কাজ করার চেষ্টা করছেন।

Related Articles

Back to top button