বলিউডবিনোদন

অভিনব পদক্ষেপ! পুরুষ পুরোহিত নয় মহিলা পুরোহিতের মাধ্যমে বিয়ে সারলেন অভিনেত্রী দিয়া মির্জা

Advertisement

বলিউড জগতে অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন দিয়া মির্জা। সাহিল সাঙঘি এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিল দিয়া মির্জা ২০১৪ সালে। তাদের ভালোবাসার বিয়ে ছিল। বেশ কয়েকদিন তাদের দাম্পত্য জীবন সুখের ছিল। কিন্তু বিবাহের পাঁচ বছর পরেই তাদের দাম্পত্য জীবনে অশান্তি শুরু হয়। এরপর তাদের দাম্পত্য জীবন সুখের থাকেনা আর তাদের বৈবাহিক সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটে ২০১৯ সালে। তবে তাদের বিচ্ছেদের কারণ কি সেই বিষয়ে কোন রকম বক্তব্য প্রকাশ তিনি করেননি। তারপর বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিজেকে নিয়োগ করে অভিনেত্রী। এরপর ২০২০ সালে তিনি বৈভব রেকির সাথে ডেটিং শুরু করে।

আর তাদের এই প্রেমের সম্পর্কের পরিণতি পায় ২০২১ সালে। ভালোবাসার মাস ফেব্রুয়ারি মাসে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়। সোমবার তাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং পরিবারের উপস্থিতিতে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়। দিয়ার বান্দ্রার বাড়িতে তাদের বিয়ের মণ্ডপ তৈরি হয়েছিল। বিয়ের আসর সাজানো ছিল অসাধারণ সুন্দর ফুল দিয়ে। বিবাহের দিন দিয়ার পরনে ছিল লাল বেনারসি এবং অসাধারণ রত্নের গয়না। শাহিলের পরনে ছিল সাদা শেরওয়ানি এবং বেজ রঙের পাগড়ি।

কিন্তু তাদের বিবাহের মধ্যে ছিল এক অভিনব পদক্ষেপ। তাদের বিবাহ কোন পুরুষ পুরোহিত নয় একজন নারী পুরোহিত সম্পন্ন করে।মন্ত্রোচ্চারণ শুধু পুরুষ পুরোহিত নয় একজন নারী পুরহিত করতে পারে। আমাদের টলিউডের “ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্যটি ” একটি বাংলা সিনেমাতে এই দৃষ্টান্ত ফুটিয়ে তোলা হয়েছিল। এবারে কোন সিনেমা নয় রিয়েল লাইফে এমনটাই ঘটে। অভিনেত্রী দিয়া মির্জা এবং ব্যবসায়ী সাহিল তাদের দাম্পত্য জীবন শুরু করে একজন নারী পুরোহিতের আশীর্বাদে। তাদের বিয়ের রীতিনীতি এতটাই অভিনব ছিল যে সেই বিয়েতে কোন কন্যা দান বা কনকাঞ্জলি ছিলনা। তাদেরই অভিনব পদক্ষেপ দেখে নেটিজেনরা প্রশংসা করেছে।

Related Articles

Back to top button