Today Trending Newsনিউজপলিটিক্সরাজ্য

“মোদি শাহ ২ মিনিট বাংলায় বক্তৃতা দিয়ে দেখাক”, খোলা চ্যালেঞ্জ অভিষেকের

ঝাড়গ্রামের নোয়াগ্রামে আজ জনসভা করেছেন অভিষেক ব্যানার্জি

×
Advertisement

একুশে বাংলা বিধানসভা নির্বাচনের দামামা বেজে গেছে। এই মুহূর্তে রাজ্যের সমস্ত রাজনৈতিক দল ভোট প্রচারের উদ্দেশ্যে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে গিয়ে জনসভা করছে। তারই মধ্যে অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের ভিত্তিতে ক্রমশ বাড়ছে তৃণমূল-বিজেপি দ্বন্দ্ব। এবার ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জি একটি জনসভায় উপস্থিত থেকে মোদি শাহের বিরুদ্ধে গলায় সুর তুললেন। তিনি তাদেরকে কটাক্ষ করে বলেছেন, “ওরা বাংলা দখল করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। কিন্তু আমি ওদের চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছি যে ওরা বাংলায় ২ মিনিট ভাষণ দিয়ে দেখাক।” সেই সাথে তিনি বিজেপি নেতাদের আহ্বান করেছেন যে বাংলার উন্নতি প্রসঙ্গে তারা যেন বিতর্ক সভায় অংশগ্রহণ করে।

Advertisement

আসলে তৃণমূল নেতা তথা ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জি আজ শুক্রবার ঝাড়গ্রামের নয়াগ্রামে একটি জনসভায় উপস্থিত ছিলেন। তিনি এই জনসভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে কটাক্ষ করেছেন। তিনি বলেছেন, “বাংলায় প্রায় প্রতিদিন কেন্দ্রীয় নেতারা বৈঠক করতে আসছেন। দিল্লি ডেলি প্যাসেঞ্জার ই করছেন। নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ, জেপি নাড্ডা, কৈলাস বিজয়বর্গীয়রা সভা করতে আসছেন। আমি ওদেরকে চ্যালেঞ্জ করছি যে ওরা মঞ্চে দাঁড়িয়ে ২ মিনিট বাংলায় বক্তৃতা দিক। পাল্টা আমি এক ঘন্টা হিন্দিতে বক্তৃতা দেবো। আমাকে দেশে যে প্রান্তে নিয়ে যাবেন সেটা অসম হোক কি দিল্লি, আমি হিন্দিতে ভাষণ দিতে পারবো কোন কাগজ ছাড়া। কিন্তু বিজেপির তাবড় নেতাকে কাগজ ছাড়া বাংলাতে বক্তৃতা দিয়ে দেখাক।”

এছাড়া ওই দিন তিনি বিজেপির সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, “বিজেপি বাংলা সংস্কৃতি বোঝেনা বা ঐতিহ্যকে বোঝেনা। তাই ওদের রবীন্দ্রনাথের কবিতা বলতে গিয়ে পিন্ডি চটকে যায়। কবিগুরু আমাদের মাঝে যদি থাকেন তাহলে তিনি লজ্জায় মাথা লোকাতে পারতেন না।”

Advertisement

এছাড়াও এদিন জনসভা থেকে অভিষেক ব্যানার্জি তৃণমূল-বিজেপি উন্নয়নের খতিয়ান সম্বন্ধে বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ করেছেন। তিনি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলেছেন, “গত 10 বছরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন করেছে তা দেশের অন্য কোন রাজ্যে হয়নি। একই সঙ্গে ডায়মন্ড হারবার এর বিধায়ক গেরুয়া শিবির কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলেছেন, লড়াই হবে তথ্য ও পরিসংখ্যান ভিত্তিতে। কোন চ্যানেলে কে বসবে কে আসবে ওরা ঠিক করুক। একদিকে বিজেপির সর্বভারতীয় নেতা থাকবে, অন্যদিকে আমি একা থাকবো। ১০ গোল দেব।”

Related Articles

Back to top button