আন্তর্জাতিকনিউজ

দেশভাগের পর বাংলাদেশ থেকে একজনও ভারতে অনুপ্রবেশ করেনি, দাবি বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

Advertisement

ঢাকা: কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্য সফরে এসে পুনরায় দাবি করেছিলেন যে, দিনের পর দিন বাংলাদেশ থেকে যে বাংলাদেশিরা অনুপ্রবেশ করেছে ভারতে, তাদেরকেই এনআরসি ইসু দিয়ে এ দেশ থেকে বের করে দেওয়া হবে। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, ১৯৭১ সালের পর থেকে একজনও বাংলাদেশ থেকে ভারতে অনুপ্রবেশ করেনি। বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এহেন বক্তব্য বর্তমান রাজনৈতিক মহলে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এ প্রসঙ্গে ভারতের এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি জোরের সঙ্গে দাবি করছি, ১৯৭১ সালের পর থেকে বাংলাদেশ থেকে একজনও বেআইনিভাবে ভারতে প্রবেশ করেনি৷ ভারত আমাদের খুব ভাল বন্ধু এবং আমি মনে করি এই বিষয়গুলির প্রভাব দুই দেশের সম্পর্কে পড়বে না৷ তাই এনআরসি এবং সিএএ নিয়ে আমরা বিন্দুমাত্র ভাবিত নই৷ বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে বেআইনিভাবে কেউ ভারতে যাননি৷ দেশভাগের সময় কিছু মানুষ ভারতে চলে গিয়েছিলেন ঠিকই, কিন্তু তারপরে নয়৷’

এর পাশাপাশি তিনি আরও দাবি করেছেন যে, বাংলাদেশ একটা গরীব রাষ্ট্র নয়। তাই সেখান থেকে বাংলাদেশি নাগরিকরা ভারতে আশ্রয় নেওয়ার জন্য আসতে পারে না। বাংলাদেশে জিডিপির হার বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং অর্থনৈতিক অবস্থাও বেশ ভাল। আয় ভাল হচ্ছে বলেও দাবি করেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এক কথায় ভারত যে এনআরসি এবং সিএএ ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারীদের দেশ থেকে বের করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে চলেছে, তাকে কার্যত নস্যাৎ করে দিলেন আসাদুজ্জামান খান।

Tags

Related Articles

Back to top button