×
দেশনিউজ

মাত্র ১ ঘন্টাতেই করোনা আক্রান্ত সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধার অক্সিজেন লেভেল ৬৫ থেকে ৯৪ তে পৌঁছে দিলো এই ওষুধটি!

হাসপাতাল জানিয়েছে ওই বৃদ্ধাকে ২ ডিজি প্রয়োগ করা হয়েছে তার অক্সিজেন লেভেল ঠিক জায়গায় নিয়ে আসার জন্য

Advertisement

ডিআরডিও এর তৈরি ওষুধ একেবারে জাদুর মত কাজ করল এক ৭০ বছরের বেশি বয়সের করোনা আক্রান্ত মহিলার ক্ষেত্রে। মধ্যপ্রদেশের শহর ইন্দোরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন এই সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা। হাসপাতালে বুলেটিন সূত্রে জানা যাচ্ছে, সন্তোষ গয়াল নামক ওই বৃদ্ধা দেড় মাস আগে করোনাভাইরাস নিয়ে ইন্দোরের ওই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেই সময় তিনি সুস্থ হয়ে গেলেও, করোনা পরবর্তী সময়ে আবারো বেশ কিছু শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে তিনি ভর্তি হন হাসপাতালে।

Advertisement

পরেরবার যখন তিনি ভর্তি হয়েছিলেন তখন শুধুমাত্র করোনা নয়, শ্বাসকষ্ট, হৃদযন্ত্রের সমস্যা, ব্রেস্ট ক্যান্সার, আর্থারাইটিস এর মত বেশ কিছু সমস্যা নিয়ে তিনি হাসপাতালে আসেন। ডাক্তাররা জানাচ্ছেন, ওই মহিলার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ ছিল। হাসপাতালে ভর্তি থাকাকালীন একটা সময়ে ওনার রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ৬৫ তে নেমে যায়।

তারপরেই ডাক্তারদের পরামর্শ মতো ওই বৃদ্ধাকে প্রতিরক্ষা গবেষণা এবং উন্নয়ন সংস্থার অধীনে ইনস্টিটিউট অফ নিউক্লিয়ার মেডিসিন অ্যান্ড আলায়েড সাইন্স ল্যাবে প্রস্তুত 2-DG ওষুধটি প্রয়োগ করা হয়। তারপরেই বৃদ্ধা বেশ অনেকটা সুস্থ হয়ে ওঠেন। ডাক্তাররা জানাচ্ছেন, হাসপাতালের অনুরোধ মেনে তারা ঐ বৃদ্ধার উপরে ডিআরডিও-র তৈরি এই ওষুধ প্রয়োগ করা হয়। মাত্র ১ ঘন্টার মধ্যেই ঐ বৃদ্ধার অক্সিজেন লেভেল ৬৫ থেকে ৯৪ তে পৌঁছে যায়। যদিও তারপরে আবার ওই বৃদ্ধার অক্সিজেন লেভেল কিছুটা কমে গিয়েছিল।

Advertisement

ডিআরডিও জানিয়েছে, এই ওষুধের সঠিক ফল পেতে গেলে রোগীকে মোটামুটি ৮ থেকে ১০ প্যাকেট ওষুধ প্রয়োগ করতে হবে। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই দিল্লি প্রতিরক্ষা গবেষণা এবং উন্নয়ন সংস্থার মুখ্য কার্যালয়ের একটি অনুষ্ঠানে এই ওষুধের প্রথম ব্যাচটির উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হর্ষবর্ধন।

Related Articles

Back to top button