ইভেন্ট

ভারতের তেরঙ্গা পতাকা স্রষ্টা কে? জাতীয় পতাকা সম্পর্কে ১০টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জেনে নিন

শ্রেয়া চ্যাটার্জি- ১৯৪৭ সালের ১৫ ই আগস্ট, আজকের দিনে ভারত স্বাধীন হয়েছিল। প্রতি বছর আজকের দিনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী রেড ফোর্ট এ ভারতের তেরঙ্গা জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এদিন সমস্ত স্কুল-কলেজ বিদ্যালয় এবং নানা প্রতিষ্ঠানে পতাকা উত্তোলন করে আজকের দিনটিকে উদযাপন করা হয়। জওহরলাল নেহেরু বলেছিলেন, “পতাকা হল ভারতের প্রত্যেকটি মানুষের স্বাধীনতার প্রতীক।” ভারতীয় পতাকা সম্পর্কে জেনে নিন ১০ টি অজানা কাহিনী-

১) অন্ধ্রপ্রদেশের একজন স্বাধীনতা সংগ্রামী পিঙ্গালি ভেঙ্কাইয়া যিনি ভারতের জাতীয় পতাকার নকশা তৈরি করেছিলেন।

২) ১৯৪৭ সালের ১৫ ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের কিছুদিন আগে অর্থাৎ ওই একই বছরের ২২শে জুলাই ভারতীয় পতাকা গ্রহণ করা হয়।

৩) ১৯০৬ সালে ৭ই আগস্ট প্রথম কলকাতার পার্শিবাগান স্কোয়ারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছিল।

৪) পতাকার একদম উপরে থাকে গেরুয়া। গেরুয়া রং উৎসাহ ও ত্যাগের এর প্রতীক। মাঝখানে থাকা সাদা রং সত্য ও শান্তির প্রতীক। সবুজ রং বিশ্বাস এর প্রতীক।
সাদার মাঝে থাকা চরকা, প্রগতির প্রতীক তথা চরকা ভারতের অর্থনৈতিক পুনরুজ্জীবন ও দেশবাসীর শ্রমশীলতার প্রতীক হিসাবে গৃহীত হয়।

৫) জাতীয় পতাকা তৈরি হয়েছে খাদি কাপড় দিয়ে। হাতে তৈরি একেবারে সুতির কাপড় যে কাপড়ের জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছিলেন মহাত্মা গান্ধী।

৬) পতাকা তৈরির বিষয়টি দেখাশোনা করেন খাদি ডেভেলপমেন্ট এন্ড ইন্ডাস্ট্রি কমিশন।

৭) ১৯৫৩ সালে ২৯শে মে ভারতের উচ্চতম শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে তেনজিং নোরগে ভারতের পতাকা উত্তোলন করেছিলেন।

৮) ২০০২ সালের আগে শুধুমাত্র স্বাধীনতা দিবস এবং প্রজাতন্ত্র দিবস ছাড়া ভারতবাসীরা জাতীয় পতাকা উত্তোলনের নিয়ম আইনে বলা ছিল না। ২০০২ সালে আইনে বলা হয়, ভারতবাসী যে কোন দিনে যে কোনো সময় পতাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

১০) ফ্ল্যাগ কোড অনুযায়ী, জাতীয় পতাকা উত্তোলনের সময় সকাল বেলা। আর কখনোই যেন এই জাতীয় পতাকার উপরে অন্য কোন চিহ্ন না থাকে।

Related Articles

Back to top button