নিউজপলিটিক্স

বিজেপিকে আটকাতে মমতার পুলিশ এ কী করলো?

Advertisement

রাজীব ঘোষ : বিজেপির শান্তিপূর্ণ মিছিল আটকাতে পুলিশ স্টান গ্রেনেড চার্জ করেছে।এই অভিযোগ করেছেন বিজেপির নেত্রী এবং প্রাক্তন আইপিএস ভারতী ঘোষ।সোমবার বিজেপির পক্ষ থেকে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার এসপি অফিস ঘেরাও করার কর্মসূচি ছিল।সেই মিছিলে যুবক,যুবতী,বয়স্ক সমর্থক থেকে শুরু করে সমস্ত শ্রেণীর মানুষ অংশগ্রহণ করেছিল।মিছিল শান্তিপূর্ণ উপায়ে কর্মসূচি পালন করছিল।এসপি অফিসের সামনে পৌঁছনোর পর পুলিশের দ্বিতীয় ব‍্যারিকেড অতিক্রম করতেই আক্রমণ শুরু করে পুলিশ বাহিনী।

বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষ অভিযোগ করে বলেন, পুলিশ আমাকে এবং বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসুকে মারতে চেয়েছিল।তাই ওই মিছিলের উপর স্টান গ্রেনেডের মতো মারাত্মক অস্ত্র প্রয়োগ করেছে।ভারতী ঘোষ আরো বলেন, স্টান গ্রেনেড দাঙ্গা, অস্ত্র নিয়ে কোনো বৃহৎ মাপের আক্রমণ প্রতিহত করতে পুলিশ ব‍্যবহার করে।প্রচুর মানুষের হিংসাত্মক জমায়েত নিয়ন্ত্রণ করতে এই অস্ত্রের প্রয়োগ করা হয়।স্টান গ্রেনেড চার্জ করলে বিকট শব্দ হয়।চারিদিকে ধোয়ায় ভরে যায়।বিস্ফোরণের তীব্রতা হয় অনেক বেশি।যার ফলে যেখানে এই স্টান গ্রেনেড চার্জ করা হয়, সেই এলাকার মধ্যে থাকা মানুষের যথেষ্ট ক্ষতি হতে পারে।

এমনকি প্রানহানির সম্ভাবনা থাকে।বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষের অভিযোগ, ওই স্টখন গ্রেনেড পুলিশ বিজেপির মিছিলে চার্জ করলে সেটা আমার দেহরক্ষীর মাথায় এসে পড়ে।তিনি প্রশিক্ষিত হবার কারণে তৎক্ষণাৎ মাথা থেকে ফেলে দেন।যদিও তিনি এখনো পর্যন্ত চিকিৎসাধীন রয়েছেন।আমিও আহত হই।কোনো রাজনৈতিক দলের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচিতে স্টান গ্রেনেড ব‍্যবহার করা হয় না।

ভারতী ঘোষ পুলিশের প্রশিক্ষণ চলাকালীন কোন অস্ত্র মারাত্মক,কতটা শক্তিশালী সেই বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন।তাই এই ধরনের কর্মসূচিতে এই অস্ত্র মমতার পুলিশ প্রয়োগ করার কারণ হিসেবে তিনি বলেন, বিজেপিকে আটকাতে মমতার পুলিশকে এই ধরনের মারাত্মক অস্ত্র ব‍্যবহার করতে হচ্ছে কেন?তার অভিযোগ বিজেপির নেতৃত্বকে মারতেই স্টান গ্রেনেড পুলিশ ব‍্যবহার করেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button