জীবনযাপন

জানেন একজন নারীর কাছে আদর্শ পুরুষ হতে হলে কি করতে হয়?

Advertisement

যুগ যুগ ধরেই হয়ে আসছে এই জিনিস। কখনও গল্প কখনও কবিতা কিংবা কখনও সাহিত্যের মধ্যে ফুটে এসেছে বারবার পুরুষের কাছে নারীর সৌন্দর্যের বর্ণনা। আচ্ছা যদি কখনো এর বিপরীত হয় তাহলে কেমন হয় ব্যাপারটা? কিন্তু কখন একজন নারীর কাছ থেকে পুরুষের সৌন্দর্যের কল্পনা করতে আমরা কখনো শুনিনি।

নারীর মুখ থেকে যদি পুরুষের সৌন্দর্যের বর্ণনা শোনা যায়? আসলে নারীরা ভীষণ মুখচোরা টাইপের হয়। তার মানে এটা ভেবে নেওয়ার কোনো কারণ নেই যে তাদের কোনো পছন্দের বিষয় নেই। প্রত্যেকের কাছে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে।  আগেকার ইতিহাসে বাজে কোন ধর্ম গ্রন্থে এটাই বারবার বর্ণনা দেওয়া হয়েছে যে একজন পুরুষ মানেই যার হবে সুঠাম দেহ, শক্তিশালী এবং সাহসী। এবং যার কথাই হবে শেষ কথা ।কিন্তু এমন টাইপের পুরুষদের কে একজন নারী কখনোই মেনে নিতে পারেন না। একজন নারীর কাছে সব থেকে আগে হলো তার সম্মান। যে পুরুষ তার সম্মান করবে, যে পুরুষ তার ইচ্ছে গুলো কে দেখবে,  তার ভালো লাগা তার খারাপ লাগা খারাপ সময়ে পাশে থাকা ভালো সময়ে পাশে থাকা এবং সবশেষে দুজন-দুজনের পরিবার কে সম্মান করা।

একজন নারীর কাছে ছেলেটি লম্বা হোক কিংবা বেঁটে। ছেলেটির গায়ের রং কালো হোক কিংবা ফর্সা এগুলো কখনোই ম্যাটার করে না। সে যদি কেরিয়ারের সু প্রতিষ্ঠিত হয় তাহলে নারীদের এই বিষয়টি ভীষণ আকর্ষণ করে সেই ছেলেটির। একজন ছেলের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা খুব ভীষণ ভাবে আকর্ষিত করে একজন নারীকে। সেটি শরীর হোক কিংবা মন। একজন নারীর একজন পুরুষ একজন পুরুষের রুচিশীল পোশাক মার্জিত ব্যবহার, কথাবার্তায় রসবোধ থাকা এগুলোকে ভীষণভাবে আকর্ষিত করে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button