দেশনিউজপলিটিক্স

একদিকে বিজেপির কর্মসূচি, তার মধ্যেই ত্রিপুরা পৌছলেন তৃণমূলের সাংসদেরা, তুমুল বিক্ষোভের সম্ভাবনা

তৃণমূলের একটি প্রতিনিধিদল ইতিমধ্যেই ত্রিপুরা পৌঁছে গিয়েছে যেখানে তাদের সহায়তা করতে অবস্থান করছেন মলয় ঘটক এবং শান্তনু সেন



ত্রিপুরা বিজেপির পক্ষ থেকে তৃণমূলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ আনা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে অশালীন ভাষা প্রয়োগ এবং শান্ত ত্রিপুরাকে অশান্ত করার চেষ্টা সহ তৃণমূলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনেছে বিজেপি। তার প্রতিবাদে রাজ্য জুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দিয়েছে ত্রিপুরার বিজেপি। বিভিন্ন প্রান্তে ইতিমধ্যেই বিক্ষোভে সামিল হয়েছিলেন বিজেপি কর্মীরা। রাজধানী আগরতলা সহ বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ কর্মসূচি দেখানো হয়েছিল।

আর এই বিক্ষোভ কর্মসূচির মাঝখানেই আজকের তৃণমূল কংগ্রেস পা রেখেছে ত্রিপুরায়। ত্রিপুরার আগরতলায় আজকে দুপুরের দিকে পা রেখেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তরফ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবারে উত্তর-পূর্বের এই রাজ্যে খেলা হবে দিবস পালিত হবে। এই খেলা হবে দিবস পালন করার জন্য ত্রিপুরার দিকে রওনা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু এবং তৃণমূলের বেশ কয়েকজন সাংসদ। কিন্তু ত্রিপুরা পৌঁছানোর পরে পুলিশের নোটিশ তার হাতে আসতে চলেছে কারণ পুলিশের কাজে বাধা দেবার জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে খোয়াই থানায়।

কিন্তু তবুও তৃণমূল কংগ্রেস দমে যাওয়ার পাত্র নয়। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিনিধি দলের এই সফর নিয়ে আবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠতে পারে ত্রিপুরা রাজনীতি। তার পাশাপাশি আগামী সোমবার খেলা হবে দিবস পালিত হবে সারাদেশে। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও ত্রিপুরা, গুজরাট, উত্তর প্রদেশ এবং আসামে এই খেলা হবে দিবস পালিত হবে। এই কারণেই ত্রিপুরায় প্রতিনিধিদল পাঠানো শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সন্ধ্যার দিকে পৌঁছানোর কথা সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার, অর্পিতা ঘোষ, অপরুপা পোদ্দার, প্রতিমা মন্ডল, আবির রঞ্জন বিশ্বাস এবং আবু তাহের খান এরা।এছাড়াও ইতিমধ্যেই ত্রিপুরায় অবস্থান করছেন সাংসদ শান্তনু সেন এবং মন্ত্রি মলয় ঘটক। ত্রিপুরায় পুলিশের দ্বারা বিভিন্ন কর্মীদের বারংবার আটক করা হচ্ছে এবং সেই প্রতিবাদ করার জন্য এবং তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এই দুই নেতা বর্তমানে পৌঁছে গেছেন সেখানে।

আগামী সোমবার ত্রিপুরায় খেলা হবে দিবস পালন করার জন্য ইতিমধ্যেই কর্মসূচি তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস। অন্যদিকে খেলা হবে কর্মসূচির বিপরীতে এরাজ্যে পাল্টা কর্মসূচি দিয়ে নামতে চলেছে বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপির তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তারা ঐ দিনকে রাস্তায় কর্মী এবং সমর্থকদের সঙ্গে খেলায় ব্যস্ত থাকবেন। কিন্তু পুলিশের অনুমতি না নিয়ে এই কাজ করছে বিজেপি।

Related Articles

Back to top button