বলিউডবিনোদন

সারার পাশে নেই বাবা, মাদক কাণ্ডে মা অমৃতাকে দুষলেন অভিনেতা সইফ আলি খান

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের আত্মঘাতীর পর প্রক্তন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে মাদক মামলায় গ্রেপ্তারের পর তদন্তে এক নতুন মোড় আসে।বলিউডে মাদক তদন্তে একে একে দীপিকা পাড়ুকোন, শ্রদ্ধা কাপুরের পর এবার এন.সি.বি অফিসে হাজিরা দিয়েছিলেন সারা আলি খান। মাদক মামলায় মেয়ের নাম জড়ানোর পর থেকেই মাদক মামলায় সারা আলি খানের নাম জড়ানোর পর থেকেই বিভিন্ন গুঞ্জন শুরু হয়। শোনা যায়,মাদক মামলায় সারার নাম জড়ানোর পর থেকেই নাকি সারা আর সইফ আলি খানের সম্পর্কে এসেছে দুরত্ব।

এবার এই বিষয়ে খোলশা করে কথা বললেন অভিনেতা নিজেই। একটি সংবাদসংস্থায় সাক্ষাৎকারে সইফ আলি খান বললেন, মাদক মামলায় সারার নাম জড়ানোর পর মেয়ের কাঁধ থেকে তার হাত সরাননি। তিনি আরো বললেন,বাবা মেয়ের দুরত্বের গুঞ্জন পুরোটাই ভুল। তিনি তাঁর ৩ সন্তানকেই সমানভাবে ভালবাসেন ।

তিনজনেই তাঁর হৃদয়ের ৩টি পৃথক জায়গায় রয়েছে। তাই তার বড় কন্যার বিপদে তাকে একা ছেড়ে তিনি দূরে থাকবেনা স্পষ্ট জানান বাবা সইফ। সারা আর ইব্রাহিম দুজনের সব সুবিধা অসুবিধার কথা তিনি ভাবেন।

উল্লেখিত,এন.সি.বির জেরায় সারা জানান ২০১৮ তে কেদারনাথ ছবির শুট্যিংয়ের সময় সুশান্তের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক সূত্রপাত। তারপর অভিনেতার সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্কও শুরু করেছিলেন তিনি। ছবির শুটিং শেষ হওয়ার পর তিনি সুশান্তের সঙ্গে ওর কেপ্রি হাউসের বাড়িতে থাকতেও গিয়েছিলেন। ছবির রিলিজের পর ব্যক্তিগত কারণে তাদের সম্পর্কের বিচ্ছেদ হয়।

মাদক মামলায় নাম জড়ানোর পর বাবা আর ঠাকুমা সারাকে কোনওরকম সাহায্য করছেননা এমনই খবর পাওয়া যায়।এন.সি.বি জেরার দিন দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী করিনা কাপুর খানকে নিয়ে দিল্লি পাড়ি দেওয়ার চিত্র দেখা যায়। এমনকী, মাদক মামলায় সারার নাম জড়ানোর জন্য প্রাক্তন স্ত্রী অমৃতা সিংয়ের বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠেন সইফ। সারার কিছু বিষয়ে তিনি কষ্ট পেলেও মেয়ের কাছ থেকে তিনি কখনওই দূরে সরে যাননি বলে জানান সইফ।

Tags

Related Articles

Back to top button