দেশনিউজ

প্রায় এক মাস পর আবারও ঊর্ধ্বমুখী হতে পারে পেট্রোল-ডিজেলের দাম, আশঙ্কা ডিলারদের

সংসদের বাদল অধিবেশন চলাকালীন প্রায় এক মাস ধরে অপরিবর্তিত রয়েছে পেট্রোল এবং ডিজেলের



গত এক মাস ধরে রাষ্ট্রায়াত্ত অপরিশোধিত তেল সংস্থাগুলি তাদের জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করেনি। কিন্তু বাদল অধিবেশন শেষ হতে না হতেই আবারো ঊর্ধ্বমুখী হতে চলেছে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম। সংসদে জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে বিরোধীদের দৃষ্টি আকর্ষণ ঠেকাতে মূল্যবৃদ্ধি থেকে বিরত ছিল রাষ্ট্রায়ত্ত সমস্ত সংস্থা। কিন্তু বাদল অধিবেশন কাটতেই, খুব তাড়াতাড়ি দাম বৃদ্ধি হতে পারে পেট্রোল এবং ডিজেলের।

গত একমাস ধরে বালের অধিবেশন চলাকালীন রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা গুলি কোন ভাবেই দাম বৃদ্ধি করে নি। তার কারণ হলো মূলত বিরোধীদের ঠেকানো। এই মুহূর্তে যদি পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম আরো বৃদ্ধি পেত তাহলে ভারতীয় জনতা পার্টি সরকারের আরো বেশি সমস্যা হতে পারত। এমনিতেই বাদল অধিবেশন খুব একটা ভালো ভাবে সম্পন্ন হয়নি কারণ তৃণমূল সাংসদরা রাজ্যসভা এবং লোকসভায় দুই জায়গাতেই একের পর এক বিক্ষোভ দেখিয়েছেন।

পেগাসাস এবং অন্যান্য ইস্যু নিয়ে এবারের শুরু থেকেই বেশ উত্তাল ছিল সংসদ। একাধিক বিল ছিঁড়ে দেওয়া, ওয়েলে নেমে সাংসদদের বিক্ষোভ কর্মসূচি, পাপরি চাট সবকিছুই ছিল এবারে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বাকি মন্ত্রিসভার সদস্যরা বারংবার তাদেরকে সামলানোর চেষ্টা করলেও লাভের লাভ কিছুই হয়নি।

তার মধ্যেই আবার যদি পেট্রোল এবং ডিজেলের মত কোন একটি ইস্যু বিরোধীদের হাতে চলে আসতো তাহলে হয়তো একেবারেই অধিবেশন মুলতুবি করে দিতে হতো। প্রসঙ্গত গত ১৯ জুলাই থেকে সংসদের দুই কক্ষ শুরু হয়েছিল বাদল অধিবেশন। কিন্তু মেয়াদ শেষে দুদিন আগেই ১১ ই আগস্ট অধিবেশন বন্ধ করে দেওয়া হয়। শেষবারের মতো পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ানো হয়েছিল পনেরোই জুলাই। সেদিন থেকে আজ অব্দি কিন্তু পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম একটুও বৃদ্ধি পায়নি। কিন্তু এবারে ডিলাররা আশঙ্কা করছেন খুব তাড়াতাড়ি আবার দাম বাড়তে চলেছে পেট্রোল এবং ডিজেলের।

Related Articles

Back to top button