×
দেশনিউজ

করোনা ভ্যাকসিন তৈরিতে এগিয়ে ভারতের ৭ সংস্থা

দেশের ৭ টি সংস্থা করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দিকে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে। 

Advertisement

সারা বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। ইতিমধ্যেই গোটা বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৬ লক্ষ ছাড়িয়েছে। এই মারণ ভাইরাসের প্রকোপ থেকে রেহাই পেতে চাইছে গোটা বিশ্ব। আর তাই সারা বিশ্বের গবেষকরা এই ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারের চেষ্টাতে দিনরাত এক করে দিচ্ছেন। সারা বিশ্বব্যাপী প্রায় ১৫৫ টি প্রতিষেধকের গবেষণা চলছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনো দেশই এই ভাইরাসের সঠিক প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে পারেনি। ভারত ও এই ভাইরাসের গবেষণা চালাচ্ছে। এই মুহূর্তে দেশের ৭ টি সংস্থা করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দিকে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে।

Advertisement

দেখে নিন সেই তালিকা –

১) ভারত বায়োটেক – দেশের করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ক্ষেত্রে একেবারে প্রথম সারিতে আছে দেশীয় পদ্ধতিতে তৈরী ভারত বায়োটেকের ওষুধ ‘কোভ্যাকসিন’, এই ভ্যাকসিনের প্রথম পর্যায়ে ৩৭৫ জন স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে হিউম্যান ট্রায়াল হবে।

Advertisement

২) সিরাম ইনস্টিটিউট- এবছরের শেষের দিকে এই সংস্থা করোনা প্রতিষেধক আনার চেষ্টায় রয়েছে। এই সংস্থার তৈরী অস্ট্রাজেনিকা-র হিউম্যান ট্রায়াল আগামী মাসেই শুরু হবার কথা।

৩) জুদাস ক্যাডিলা- এই সংস্থাও দেশ পদ্ধতিতে করোনা ভ্যাকসিন তৈরী করছে। এদের ZyCov-D’র ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হয়েছে। আগামী ৬-৭ মাসের মধ্যেই এদের প্রতিষেধক বাজারে চলে আসবে।

৪) ইন্ডিয়ান ইমিউনোলজিক্যাল ভ্যাকসিন-  এটি একটি সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত সংস্থা। অস্ট্রেলিয়ার গ্রিফিথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যুক্ত হয়ে করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের চেষ্টা করছে।

৫) মিনভ্যাক্স- এই সংস্থাটির তৈরি ওষুধ এখন প্রি-ক্লিনিক্যাল পর্যায়ে আছে।

৬) প্যানেনকা বায়োটেক- এই সংস্থা আয়ারল্যান্ড এবং আমেরিকার সংস্থা রেফানার সঙ্গে যুক্ত হয়ে করোনা প্রতিষেধক তৈরী করছে।  এদের তৈরী ৪০ কোটি টিকা আগামী বছরেই বাজারে আসবে।

৭) বায়োলজিক্যাল ই- এদের তৈরি ওষুধ এখন  প্রি-ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে আছে।

Related Articles

Back to top button