দেশনিউজ

তৃণমূল যে রাজ্যে যাবে সেই রাজ্য বিজেপির থেকে ছিনিয়ে নেবে, অমিত শাহকে চ্যালেঞ্জ অভিষেকের

আজকের বক্তৃতায় ত্রিপুরা নিয়ে বেশকিছু তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য রাখলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়



তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিনের ভার্চুয়াল বৈঠক থেকে সরাসরি এবারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আজকের ভার্চুয়াল সভা থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেন, তৃণমূল যে রাজ্যে পা রাখবে তা বিজেপির হাত থেকে ছিনিয়ে নেবে। তিনি হুঁশিয়ারি দিলেন, কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার ভয় দেখিয়ে তৃণমূলকে দমিয়ে রাখা যাবে না, ২০২৩ এ বিজেপির হাত থেকে ত্রিপুরাকে ছিনিয়ে নেবে তৃণমূল কংগ্রেস।

ত্রিপুরার আগামী বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে ইতিমধ্যে বিজেপি এবং তৃণমূল এর মধ্যে নতুন করে দ্বৈরথ শুরু হয়েছে। প্রথমবার ত্রিপুরা বিজয়ের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। এর আগেও ত্রিপুরাতে বেশ কয়েকটি সিট জয়লাভ করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস কিন্তু তারপরে মুকুল রায় বিজেপিতে চলে যাওয়ার পরে ত্রিপুরার সেই সমস্ত সিট মমতার হাতছাড়া হয়।কিন্তু আগামী নির্বাচনে আবারও ত্রিপুরায় নিজের প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে তৃণমূল। বিজেপির বেশকিছু হেভিওয়েট নেতা বর্তমানে তৃণমূলের সঙ্গে রয়েছেন। তাই ত্রিপুরা বিজয় কে লক্ষ্য করে তৃণমূল কংগ্রেস।

যদিও আজকের সভা থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে মন্তব্য করলেন সেখানে থেকে বোঝা গেল শুধুমাত্র ত্রিপুরা বিজয় না তার থেকেও বড় লক্ষ্য নিয়ে নামতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আজকের বক্তব্য সরাসরি অমিত শাহ কে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আমি ত্রিপুরার মানুষকে বলতে চাই আমাদের রক্তের শেষ বিন্দু পর্যন্ত তৃণমূল আপনাদের সাথে লড়াই করবে। আপনাদের স্বার্থের জন্য লড়াই করবে তৃণমূল কংগ্রেস।বিজেপি যার ক্ষমতা আছে ওরা প্রয়োগ করে নিক। বিজেপির বুকের পাটা থাকলে তৃণমূলকে রুখে দেখাক। যে রাজ্যে বিজেপি গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে এবং সাধারন মানুষের অধিকার ছিনিয়ে নিয়েছে সেই প্রত্যেকটি রাজ্যে শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত লড়াই করবে তৃণমূল কংগ্রেস। সে যদি অসভ্য হয় কিংবা ত্রিপুরা সব জায়গাতেই লড়াই করতে প্রস্তুত তৃণমূল কংগ্রেস। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার ভয় দেখিয়ে যদি মনে করেন আটকে দেবেন তাহলে সেটা ভুল করছেন, তৃণমূলকে এত সহজে আটকানো যাবেনা। আমরা নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছতে অত্যন্ত অঙ্গীকারবদ্ধ এবং আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।’

আজকের সভা থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আরো বলেন, ‘আপনাদের মনে হতে পারে ভয় দেখালে না চুপ করে যাবে। কিন্তু এটা বাংলার মাটি, প্রাণ গেলে পিছিয়ে আসবো না। আপনারা যা করার করে নিন। আমি অমিত শাহ কে চ্যালেঞ্জ করে বলছি, যে রাজ্যে তৃণমূল যাবে, রাজ্য বিজেপির হাত থেকে ছিনিয়ে নেবে। আমি দায়িত্ব নিয়ে বলছি তৃণমূল কংগ্রেস ত্রিপুরায় যখন ঢুকেছে দেড় বছরের মধ্যে ত্রিপুরায় তৃণমূল সরকার গড়বে।  দুয়ারে গুন্ডা নয় বরং দুয়ারে সরকার যাবে। ত্রিপুরায় দাদাগিরি মাতব্বরির বদলে কন্যাশ্রী যুবশ্রী প্রকল্প শুরু হবে। স্বাস্থ্যসাথী শুরু হবে।’

তার পাশাপাশি ত্রিপুরা তৃণমূল কংগ্রেস এর সংগঠন দ্রুত বাড়ছে সেটা বুঝিয়ে দিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আজকে আগরতলায় মিছিল হয়েছে। মিছিলের মাথা কোথায় আশেস কোথায় সেটা খুঁজে পাবেন না। এক মাসও হয়নি ত্রিপুরা সংগঠন শুরু হয়েছে। এখন এই রকম অবস্থা। এখনো পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজে কিন্তু ত্রিপুরায় পা রাখেননি। যেদিন পা রাখবেন সেদিন ভূমিকম্প কবে ত্রিপুরায়।’

Related Articles

Back to top button