দেশনিউজ

বেঙ্গালুরুতে মাত্র ৬ দিনে আক্রান্ত ৩০১ শিশু, তৃতীয় ঢেউ সামনেই? কি বলছেন চিকিৎসকরা

চিকিৎসকদের দাবি, এতজন শিশু যখন একসাথে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে তখন চিন্তার বিষয় আছে বৈকি



সারা দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ মোটামুটি অনেকটাই নিচের দিকে কিন্তু এখনো পর্যন্ত যেটা চিন্তা বাড়াচ্ছে সেটা হল করোনা ভাইরাসের আর ভ্যালু। সম্প্রতি বেঙ্গালুরুতে মাত্র ৬ দিনের মধ্যে ৩০০ এর বেশি শিশু করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে গিয়েছেন। এরপরে ক্রমাগত জোরালো হতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস এর তৃতীয় ঢেউয়ের সম্ভাবনা। এই কারণে, কার্যত চিন্তায় গোটা দেশ।

যখন করোনাভাইরাস আক্রমণ হয় তখন দক্ষিণ ভারতের রাজ্যগুলির সব থেকে আগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। করোনা যখন ভারতে প্রথম বার এসেছিল তখন সব থেকে প্রথমে আক্রান্ত হয়েছিল কেরালা। দ্বিতীয় ঢেউয়ের ক্ষেত্রে মোটামুটি ব্যাপারটা একই রকম ছিল। আবারও নতুন করে কৈরালা এবং কর্নাটকে আক্রান্ত হচ্ছেন কম বয়সীরা। তার ফলে তৃতীয় ঢেউয়ের সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে যে পরিসংখ্যান সামনে আসছে তা দেখে রীতিমতো নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। একসঙ্গে এতজন শিশু করোনা ভাইরাসে কি করে আক্রান্ত হয়ে গেল সেই নিয়ে রীতিমতো চিন্তায় পড়ে রয়েছে প্রশাসনিক মহল। ঘটনায় রীতিমতো উদ্বেগ প্রকাশ করে স্বাস্থ্য দপ্তরের অধিকর্তা জানিয়েছেন, যদি তাড়াতাড়ি সাবধান না হওয়া যায় তাহলে খুব তাড়াতাড়ি তৃতীয় ঢেউ সামনে আসতে পারে। আর এই ঢেউ যদি চলে আসে তাহলে শিশুরা সবথেকে বেশি আক্রান্ত হবে, যা এর আগেও জানা গিয়েছে বেশ কয়েকবার।

অন্যদিকে সেপ্টেম্বর মাস থেকে শিশুদের টিকাকরন শুরু হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু, এই টিকাকরণ শুরু হবার আগেই বেঙ্গালুরুতে এতজন শিশুর একসাথে করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের মাথায়। অনেকেই মনে করছেন, এতজন শিশুর একসাথে আক্রান্ত হওয়া তৃতীয় ঢেউয়ের কার্যত প্রথম লক্ষণ বলে ধরে নেওয়া যেতে পারে।

Related Articles

Back to top button