টলিউডবিনোদন

Dharmajuddho:  অতিমারির সঙ্গে যুদ্ধ শেষ, নতুন বছরের শুরুতেই প্রেক্ষাগৃহে আসছে রাজ-শুভশ্রীর ‘ধর্মযুদ্ধ’

×
Advertisement

বৃহস্পতিবার অর্থাৎ লক্ষীবারে সিনেপ্রেমীদের সকাল সকাল সুখবর দিলেন টলিউডের ‘হ্যাপি কপল’ রাজ-শুভশ্রী। করোনা থাকলেও এখন প্রেক্ষাগৃহের দরজা খুলে গিয়েছে। প্রায় দু-বছরের অপেক্ষার পর মুক্তি পাচ্ছে রাজশ্রীর আপকামিং ছবি। কবে মুক্তি পাবে এই পরিচালক-অভিনেত্রী দম্পতির নতুন ছবি তার ঘোষণা সেরে ফেললেন রাজশ্রী। আগামী বছরের শুরুতেই বড় পর্দায় আসছে বহু প্রতিক্ষীত ছবি ‘ধর্মযুদ্ধ’। 

Advertisement

গত বছর এপ্রিল মাসে মুক্তির তারিখ নির্দিষ্ট করেছিলেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর ‘ধর্মযুদ্ধ’। কিন্তু করোনার কড়াল গ্রাসে তা অনির্দিষ্টকালের জন্য তা পিছিয়ে যায়। এরপর চলতি বছর স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালেও ‘ধর্মযুদ্ধ’ মুক্তির ঘোষণা করেছিলেন রাজ। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য ফের বাতিল হয় পরিকল্পনা। পুজোর পর নিউ নর্ম্যালে করোনা নিয়মবিধি মেনে প্রেক্ষাগৃহের দরজা খুলছে। সিনেপ্রেমীরাও ভিড় জমাচ্ছে হলে।

বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্টে শুভশ্রী জানালেন ‘পরিণীতা’র পর আবার  কবে রুপোলি পর্দা মাতাতে ফিরছেন তিনি? রাজ ঘরনি এরপরেই জানান আগামী ২১ জানুয়ারি মুক্তি পাবে মুক্তি পাবে  ‘ধর্মযুদ্ধ’। ছবির একটি নতুন পোস্টার শেয়ার করে শুভশ্রী লেখেন, ‘ধর্মের লড়াই নাকি বেঁচে থাকার লড়াই? ২১শে‌ জানুয়ারি, ২০২২ ‘ধর্মযুদ্ধ’ আসছে বাংলার সমস্ত প্রেক্ষাগৃহে। আর এরপরেই অনুরাগীরা ভালোবাসা জানিয়েছেন রাজশ্রীর ধর্মযুদ্ধকে।

Advertisement

এই ছবির নামেই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে নতুন সিনেমার বিষয় ভাবনার। বর্তমানে সময়োপযোগী ছবি হল ধর্মযুদ্ধ। ধর্মের নামে মানুষে মানুষে যে ভেদাভেদ, ধর্ম নিয়ে মানুষের মনে যে রাজনীতি তৈরী হয়েছে তাই হল এই সিনেমার প্রেক্ষাপট। শুভশ্রী ছাড়াও পরিচালক রাজের এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় থাকছেন সোহম চক্রবর্তী, ঋত্বিক চক্রবর্তী, পার্নো মিত্র এবং স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। 

শুভশ্রী এই ছবিতে রয়েছেন মুন্নী নামে এক সাধারণ গৃহবধূর চরিত্রে, ঋত্বিক চক্রবর্তী, সোহম চক্রবর্তী, পার্নো মিত্রকে দেখা যাবে, রাঘব,জাফর এবং শবনমের ভূমিকায়। ‘ধর্মযুদ্ধ’র বাইরে গিয়ে বিপদে সকলের আশ্রয়দাতা হলেন আম্মি ওরফে স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। পরিণীতার পর ফের একবার রাজ চক্রবর্তীর ছবির কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে শুভশ্রী। অনেক সমালোচকদের মতেই এই ধর্মযুদ্ধ নাকি রাজের কেরিয়ারের সবচেয়ে সাহসী ছবি। তবে সে কথা মানতে চাননা তাঁর স্ত্রী শুভশ্রী। অভিনেত্রী এর আগে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ‘এর আগে প্রলয়ের মতো ছবি বানিয়েছে তাঁর স্বামী রাজ৷ রাজের ভাবনা বরাবরই সবার থেকে আলাদা’। 

‘ধর্মযুদ্ধ’ এই সিনেমার অপেক্ষার মাঝে অনেকটা পরিবর্তন এসেছে রাজ-শুভশ্রীর জীবনে। গত বছর মে মাসে মা হওয়ার সুখবর দিয়েছিলেন নায়িকা৷ এরপর সেপ্টেম্বরে শুভশ্রীর কোল আলো করে এসেছে ইউভান। এখন কেরিয়ারের পাশাপাশি সন্তান নিয়েও ভীষণ ব্যস্ত শুভশ্রী আর রাজ। ইউভানের জন্মের পর এটাই হবে তারকা দম্পতির প্রথম সিনেমা মুক্তি। তাই সব দিক থেকেই খুব স্পেশ্যাল হবে ‘ধর্মযুদ্ধ’। আর এই সিনেমায় মুক্তির অপেক্ষায় সিনেপ্রেমীরাও।

Related Articles

Back to top button