×
জীবনযাপনসৌন্দর্য

Skin Care Tips: এই ঘরোয়া উপায় ১৫ মিনিটের মধ্যে মুখের রং বদলে যাবে, পাবেন অসাধারণ উজ্জ্বলতা

Advertisement

আপনার জীবনযাপনের ধরন ও রূপ চর্চার ওপর নির্ভর করে আপনার সৌন্দর্য্য। মুখ সুন্দর করতে হলে এর সঠিক যত্ন নিতে হবে। গরমে উজ্জ্বল ত্বক পেতে দই-মধু ও বেসন এর সাহায্য নিতে পারেন। এই সব ঘরোয়া জিনিস থেকে তৈরি একটি ঘরোয়া রেসিপি মুখে অসাধারণ উজ্জ্বলতা নিয়ে আসবে আপনার। বিশেষ বিষয় হল এই রেসিপিগুলি আপনি সহজেই তৈরি করতে পারবেন, এবং এটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক। 4টি উপাদানে তৈরি এই ফেসপ্যাকটি মুখের ত্বকে প্রাকৃতিক আভা এবং উজ্জ্বলতা পেতে সাহায্য করবে। আপনার ত্বকের টোনও উন্নত করবে।

Advertisement

বেসন, দই ও মধুর ফেসপ্যাক:-

প্রয়োজনীয় সামগ্রী –

Advertisement

১) বেসন – 2 চা চামচ
২) দই – 2 টেবিল চামচ
৩)মধু – 1 চামচ
৪) গোলাপ জল – 1 চা চামচ

কিভাবে ফেস প্যাক বানাবেন, তার পদ্ধতি জেনে নিন:-

প্রথমে একটি পাত্রে বেসন ছেকে নিন। এবার এতে দই ও মধু যোগ করুন। তারপর গোলাপ জল যোগ করুন এবং ভালভাবে মেশান।এইভাবে আপনার ঘরোয়া রেসিপি প্রস্তুত।

ব্যবহারের পদ্ধতি:-

মুখের পাশাপাশি সারা শরীরে লাগাতে পারেন এই মিশ্রণটি। প্রথমে ক্লিনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে শুকিয়ে নিন।তারপর মুখ ও ঘাড় সহ আক্রান্ত স্থানে লাগান। 15 মিনিটের জন্য এটি ছেড়ে দিন। তারপর হালকা হাতে ৫-৭ মিনিট স্ক্রাব করুন।স্বাভাবিক জল দিয়ে মুখ ধুয়ে শুকিয়ে নিন। আপনি সাথে সাথে ফলাফল দেখতে পাবেন। সপ্তাহে দুবার এই ফেসপ্যাক লাগাতে পারেন।

এই ফেসপ্যাকটি ত্বকে কীভাবে এবং কী কী উপকার করে:-
এই ফেসপ্যাকটি উজ্জ্বল ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। এতে উপস্থিত ৪টি উপাদান আমাদের ত্বকের উন্নতিতে ও সতেজ রাখতে সাহায্য করে।চারটি উপাদানের গুণাগুণ একত্রে মুখের উজ্জ্বলতা ও সতেজতা নিয়ে আসে। যদিও বেসন মুখের ট্যানিং দূর করে এবং সূক্ষ্ম রেখা ও বলিরেখা দূর করে, দই ত্বক উজ্জ্বল করতে সহায়ক। এটি বার্ধক্যের দাগ কমাতে সাহায্য করতে পারে। এগুলি ছাড়াও, মধুর অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যগুলি নিস্তেজ, অমসৃণ ত্বকের স্বর উন্নত করতে সহায়তা করতে পারে। এতে পাওয়া পুষ্টিগুণ ত্বকের অনেক সমস্যা যেমন দাগ, ব্রণ এবং বলিরেখা কমাতে সাহায্য করে, অন্যদিকে গোলাপজলের অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যের কারণে এটি ত্বকের জ্বালাপোড়া কমাতে সাহায্য করে।

এই তথ্যের যথার্থতা, সময়োপযোগীতা এবং সত্যতা নিশ্চিত করার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা করা হয়েছে। তবে এটা ভারত বার্তার নৈতিক দায়িত্ব নয়। দয়া করে কোনো প্রতিকার চেষ্টা করার আগে আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করার জন্য অনুরোধ করছি আমরা। আমাদের উদ্দেশ্য শুধুমাত্র আপনাকে তথ্য প্রদান করা।

Related Articles

Back to top button