দেশনিউজ

বিজ্ঞাপনে লাভ জিহাদের বার্তা, চাপে পড়ে বিজ্ঞাপনই তুলে নিল TANISHQ

Advertisement

সম্প্রতি টানিশক এর একটি বিজ্ঞাপন নিয়ে জোর সমালোচনা শুরু হয়েছে। টানিশক এর জুয়েলারি ব্বিজ্ঞাপনে দেখানো হয়েছিল এক মুসলিম পরিবার তাদের সন্তান সম্ভবা হিন্দু পুত্রবধূর হিন্দু প্রথা মেনে বেবি শাওয়ারের আয়োজন চলছে। এরপরেই সমালোচনা শুরু হয়, এমনকি বয়কট ক্যাম্পেন করা হয়। যার জেরে বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জে টাইটানের শেয়ার পড়ে যায় ২.৫ শতাংশ।

টানিশক এর বিজ্ঞাপনের প্রচার হতেই অনেকেই জানান ওই বিজ্ঞাপনে “লাভ জিহাদ” এর উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে। অনেকের মতে টানিশক মুসলিম জুয়েলারির প্রচর করছে। এই ঘতনার পরেই টানিশক জানায় ‘একাত্মম’ শিরোনামে নতুন জুয়েলারির যে বিজ্ঞাপন ছিলো তার মাধ্যমে মানুষের মধ্যে ঐক্যতা বজায় রাখার কথা বলা হয়েছে, কারোর আবেগে আঘাত উদ্দেশ্য ছিলো না।

কিছু দিন আগেই লাভ জিহাদ নিয়ে হুঁশিয়ারি দেন অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। এদিন তিনি তার স্পষ্ট বক্তব্য জানিয়ে দেন। তিনি বলেন, ”আমাদের মাটিতে লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে কঠোর লড়াই শুরু হবে। অসমে কোনও ছেলে নিজের পরিচয় ও ধর্ম গোপন করে বিয়ে করলে অথবা আমাদের মেয়ে ও বোনদের সম্পর্কে কোনও খারাপ কথা বললে কঠোর শাস্তির মুখে পড়তে হবে।” এর আগেও একাধিক জায়গায় লাভ জিহাদ নিয়ে নানা সমস্যা দেখা দিয়েছে।

আজমলস আর্মির চক্রান্তের জন্য নির্বাচনে বিজেপি পাঁচটি আসন নষ্ট হওয়ার কারণে এদিন ক্ষোভ প্রকাশ করেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা। এআইইউডিএফ  প্রধান বদ্রুদ্দিন আজমলকে সরাসরি আক্রমণ করেন তিনি বলেন, ”আমরা প্রতিজ্ঞা করেছি, আজমলস আর্মির কেউ আমাদের মেয়েদের স্পর্শ করলেই তাঁদের একমাত্র শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড”।

 

 

 

 

Tags

Related Articles

Back to top button