নিউজরাজ্য

গুলি চললো বসিরহাটে, আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি তৃণমূল নেতা

Advertisement

উত্তর ২৪ পরগণা: বসিরহাটে গুলিবিদ্ধ তৃণমূল (TMC) নেতা, আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি হাসপাতালে (Hospital)। বসিরহাট মহাকুমার ন্যাজাটে তৃণমূল নেতাকে লক্ষ্য করে এলোপাথারি গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। বর্তমানে কলকাতার (Kolkata) একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন তিনি। তবে কি জন্য এই হামলা? তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

বছর চল্লিশের সুন্নত আলী মোল্লা, এলাকার সক্রিয় তৃণমূল নেতা বলে পরিচিত। বৃহস্পতিবার সকালে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই সময় ৬-৭ জন দুষ্কৃতীর একটি দল তাঁকে লক্ষ্য করে এলোপাথারি গুলি চালায়। শব্দে স্থানীয়রা ছুটে গিয়ে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন সুন্নত। আর তখনই এলাকা ছেড়ে পালায়, দুস্কৃতীরা। এরপর তড়িঘড়ি ওই তৃণমূল নেতাকে উদ্ধার করে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন সুন্নত। এদিন ওই তৃণমূল নেতার ডান পায়ে চারটে বা পায়ে পাঁচটা গুলি লাগে ।

তার পাশাপাশি তার মাথায় গুলি করা হয়েছে বলে অভিযোগ আক্রান্ত পরিবার ও স্থানীয় বাসিন্দাদের। এই ঘটনা প্রকাশ্য দিবালোকে হওয়ায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছায় নেজাট ও মিনাখা থানার পুলিশ। সেখানে গিয়ে আক্রান্ত তৃণমূল নেতাকে উদ্ধার করে কলকাতার একটি বেসরকারি নার্সিং হোমে ভর্তি করা হয়েছে,তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আক্রান্ত পরিবারের দাবি, হাবিবুর রহমান ওরূপে বাচ্চা খোকন কুখ্যাত দুষ্কৃতী তাঁর দলবলেরাই পরিকল্পনা করে এই সশস্ত্র হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ। এটাকি রাজনৈতিকভাবে খুনের চেষ্টা, না অন্য কোনো কারণ আছে। ততা তদন্ত করে দেখছে ন্যাজাট থানার পুলিশ। এই মুহূর্তে ওই এলাকায় বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। ফলে এই ঘটনার পর থেকেই ওই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।

Tags

Related Articles

Back to top button