×
নিউজরাজ্য

“সবাইকে জামাই আদর দেওয়া সম্ভব নয়” পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রসঙ্গে বললেন শতাব্দী রায়

Advertisement

এবার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের বিষয়ে মুখ খুলে বিতর্কে জড়ালেন বীরভূমের তারকা সাংসদ শতাব্দী রায়। এদিন শনিবার সাঁইথিয়ায় একাধিক প্রশাসনিক বৈঠকে যোগদান করেন বীরভূম সাংসদ শতাব্দী রায়। আর তার মাঝে তাঁকে পরিযায়ী শ্রমিকদের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের বিক্ষোভ নিয়ে জিগ্যেস করলে তিনি জানান, “পরিযায়ী শ্রমিকদের সবাইকে জামাই আদর দেওয়া সম্ভব নয়। এই সময় মানিয়ে চলতে হবে। কাউকে মাছ দিলে, মাংস চাইছে। মাংস দিলে ডিম চাইছে। একজন এলে তাঁকে যদি আদর যত্ন করা যায় তবে সেটা সবার পক্ষে সম্ভব নয়। এখন অস্থিরতার সময়”।

Advertisement

বিগত কয়েকদিন ধরে ভিন রাজ্য থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকেরা অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ করেছেন, যে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে তাঁদের থাকতে হচ্ছে সেখানে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, নেই আলো, মিলছে না পানীয় জল থেকে খাবার। আর এই অভিযোগকে হাতিয়ার করে সুর চড়াচ্ছেন অনেকেই। বিরোধীরাও এই মন্তব্যকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছেন। বীরভূমের তারকা সাংসদ শতাব্দী রায়ের বক্তব্যকে খোঁচা দিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলিপ ঘোষ বলেছেন, ” এটাই ওদের দৃষ্টিভঙ্গি”।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ভিন রাজ্য থেকে একের পর শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে নিজ রাজ্যে ফিরছেন পরিযায়ী শ্রমিকেরা। সেরকমই বাংলাতেও পরিযায়ী শ্রমিক নিয়ে প্রবেশ করেছে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন। তবে ভিন রাজ্য থেকে আসার কারনে শ্রমিকদের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার প্রবণতা রয়েছে। এমন অনেক শ্রমিকের দেহেও মিলেছে করোনা। আর তাই নিকটবর্তী স্কুল, কলেজে বাধ্যতামূলক ভাবে তৈরি করা হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার। আর সেই সেন্টার থেকেই উঠে আসছে নানান অভিযোগ।

Advertisement

Related Articles

Back to top button