বলিউডবিনোদন

ঐশ্বরিয়া রাইকে অনেক কষ্ট দিয়েছেন সলমান খান, মধ্যরাতে বিরক্ত করতেন অভিনেতা

×
Advertisement

২১ বছর বয়সেই ১৯৯৪ সালে বিশ্ব সুন্দরীর খেতাব জিতেছিলেন এই অভিনেত্রী। এত বছর পরেও তার রূপের জৌলুস কমেনি এতটুকুও। তিনি আর কেউ নন বচ্চন পরিবারের একমাত্র পুত্রবধূ ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। অভিষেক বচ্চনের স্ত্রী তিনি। তাদের মেয়ে আরাধ্যা। এই অভিনেত্রী কোন না কোন কারণে চর্চায় থাকেন মিডিয়াতে। তার যেকোনো ছবি কিংবা ভিডিও, তা পুরনো হোক কিংবা নতুন ভাইরাল হতে এক মুহূর্তও সময় লাগে না। তবে সম্প্রতি একটি ভিডিওর সূত্র ধরেই আবারো চর্চায় অভিনেত্রী।

Advertisement

নব্বইয়ের দশকেই বলিউডের ভাইজান সালমান খানের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন তিনি। কিন্তু সেই সম্পর্কে থাকাকালীন তাকে অনেক কিছুই সহ্য করতে হয়েছে। একবার এক সাক্ষাৎকারে সেই প্রসঙ্গে খোলাখুলি কথা বলেছিলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। অভিনেত্রী যা বলেছিলেন, তা শুনলে রীতিমত অবাক হতে হবে সকলকে। জেনে নিন, তিনি ঠিক কি বলেছিলেন ভাইজান সম্পর্কে।

তিনি জানিয়েছিলেন, অভিনেতার সাথে সম্পর্কে থাকাকালীন তার গায়ে হাত তুলতেন সালমান খান। ইচ্ছা করে জেনে বুঝে অত্যাচার করতেন অভিনেত্রীর উপর। এমনকি তার জন্যই তার শরীরে অনেক ধরনের দাগ হয়ে যেত, যা অভিনেত্রী মেকাপ দিয়ে ঢেকে রাখতেন। সেইসময় মিডিয়ার সামনে এই প্রসঙ্গে মুখ না খুললেও, পরে এক সাক্ষাৎকারে সব সত্যিটা প্রকাশ্যে এনেছিলেন তিনি।

Advertisement

একটা সময় চেষ্টা করেও এই সম্পর্ক থেকে বের হতে পারছিলেন না তিনি। তবে পরবর্তীকালে সমস্ত কিছুকে পিছনে ফেলে বলিউডের বিগ বির ছেলে অভিষেক বচ্চনের সাথে গাঁটছড়া বাঁধেন। তবে বিয়ে হওয়ার পরেও একাধিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছিল অভিনেত্রীকে, সেটাও অভিনেত্রী নিজের মুখেই জানিয়েছিলেন।

জানা যায়, একবার মধ্যরাতে অভিনেত্রীর বাড়ির সামনে গিয়ে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে দিয়েছিলেন সালমান খান। আর সেই কারণবশতই আশেপাশের লোকজন থানায় অভিযোগ জানিয়ে দিয়েছিলেন। আর সেজন্য অভিনেত্রীকেও সেইসময় থানায় হাজির হতে হয়েছিল। শোনা যায়, অভিনেত্রী নাকি সালমান খানের সাথে সম্পর্কে থাকাকালীনই অভিষেক বচ্চনের সাথে সাতপাক ঘুরেছিলেন। আর সেই কারণেই মধ্যরাতে তার বাড়ির বাইরে এসে ঝামেলা করেছিলেন অভিনেতা। এই নিয়ে সেইসময়ে মিডিয়াতেও চর্চা হয়েছিল প্রচুর। তবে পরবর্তীকালে খুব স্বাভাবিকভাবেই সব সত্যিটা বলিউডের অন্দরে চাপা পড়ে যায়।

Related Articles

Back to top button