ব্যবসা-বানিজ্য ও অর্থনীতি

Post Office Scheme: পোস্ট অফিসের এই স্কিমে বিনিয়োগ করলে দ্বিগুণ হবে আপনার টাকা, জানুন সুদের হার

Advertisement
Advertisement

পোস্ট অফিসে অনেক ধরনের ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্প পরিচালিত হচ্ছে, কিছু খুব জনপ্রিয়। এর মধ্যে রয়েছে কিষাণ বিকাশ পত্র প্রকল্প, যা বিনিয়োগকারীদের অর্থ দ্বিগুণ করার গ্যারান্টি দেয়। আপনি যদি বিনিয়োগের পরিকল্পনা করে থাকেন তবে কিষাণ বিকাশ পত্র বেছে নিতে পারেন।

Advertisement
Advertisement

যত খুশি বিনিয়োগ করতে পারেন

সরকার এই প্রকল্পে ৭ শতাংশের বেশি সুদ দিচ্ছে। প্রত্যেকে তাদের উপার্জনে কিছু সঞ্চয় করতে চায় এবং এমন জায়গায় বিনিয়োগ করতে চায় যেখানে তাদের অর্থ নিরাপদ, রিটার্ন দুর্দান্ত। এই ক্ষেত্রে পোস্ট অফিসের ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্প একটি ভাল বিকল্প হয়ে উঠছে। এই স্কিমে আপনি ১০০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ করা শুরু করতে পারেন। কিষাণ বিকাশ পত্র প্রকল্পে সর্বাধিক বিনিয়োগের কোনও সীমা নেই। অর্থাৎ, আপনি যত খুশি বিনিয়োগ করতে পারেন এবং সুবিধা নিতে পারেন। ১০০০ টাকা দিয়ে শুরু করার পরে, ১০০ টাকার গুণিতকে বিনিয়োগ করতে পারেন।

Advertisement

১ লক্ষ টাকা হবে ২ লক্ষ টাকা

আপনিও জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট খুলে এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন। এর পাশাপাশি কিষাণ বিকাশ পত্রে নমিনি সুবিধাও পাওয়া যায়। এতে ১০ বছরের বেশি বয়সী শিশুরাও তাদের নামে কেভিপি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবে। আপনি যদি ১১৫ মাসের জন্য কিষাণ বিকাশ পত্র প্রকল্পে ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন, তবে এই সময়ের মধ্যে এটি ২ লক্ষ টাকা হবে। অন্যদিকে, আপনি যদি এতে ৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন তবে ১০ লক্ষ টাকা পাবেন।

Advertisement
Advertisement

post office kisan vikas patra

পোস্ট অফিসের ওয়েবসাইটে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, কিষাণ বিকাশ পত্রে বিনিয়োগের পরিমাণের উপর সুদ চক্রবৃদ্ধি ভিত্তিতে গণনা করা হয়। অর্থাৎ, আপনিও এতে সুদের উপর সুদ উপার্জন করেন। কিষাণ বিকাশ পত্র প্রকল্পের জন্য অ্যাকাউন্ট খোলা খুব সহজ। এ জন্য পোস্ট অফিসে জমাকৃত রশিদ দিয়ে আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে এবং এরপর নগদ, চেক বা ডিমান্ড ড্রাফটের মাধ্যমে বিনিয়োগের টাকা জমা দিতে হবে। আবেদনের সঙ্গে আপনার পরিচয়পত্রও যুক্ত করতে হবে। প্রতি তিন মাস অন্তর সরকার তার সুদের হার পর্যালোচনা করে এবং প্রয়োজন অনুযায়ী পরিবর্তন করে।

Advertisement

Related Articles

Back to top button