বলিউডবিনোদন

Balika Vadhu: সিদ্ধার্থের প্রয়াণে ‘বালিকা বধূ’র তিন স্টার আজ স্মৃতির পাতায়



বৃহস্পতিবার মায়ানগরীতে এল বিশাল বড় ঝড়। এদিন সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো বিগ বস সিজন ১৩’ এর বিজয়ী সিদ্ধার্থ শুক্লা। মাত্র চল্লিশ বছর বয়সেই থেমে গেল সিদ্ধার্থ শুক্লার জীবনের চাকা। হাসপাতাল সূত্রে খবর, ঘুমের আগে একটি ওষুধ খেয়েছিলেন তিনি। এর পরে আর ঘুম থেকে ওঠেননি সিদ্ধার্থ৷ ঘুমের মধ্যেই শান্ত মনে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন সিদ্ধার্থ। বৃহস্পতিবার সকালে কুপার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই রাস্তাতেই প্রাণ হারান অভিনেতা।

সিদ্ধার্থের চলে যাওয়ার কথা এখনো কেউ বিশ্বাস করতে পারছেননা। হতবাক সকলে। তাঁর অনুরাগী, সতীর্থ আর বন্ধুরা কেউই মানতে পারছেন না যে সিদ্ধার্থ আর নেই। সেন্ট জেভিয়ার্সে থেকে পড়াশোনা শেষ করে অভিনয়ের জন্য মুম্বাই আসেন। মডেলিং দুনিয়ার মাধ্যমে গ্ল্যামার জগতে পা রাখেন সিদ্ধার্থ। কেরিয়ারের শুরুর দিকে চুটিয়ে মডেলিং করেছেন। টেলিভিশন শো“ বাবুল কা আঙ্গান ছুটে ”তে প্রধান চরিত্রে অভিনয় দিয়ে অভিনয় জগতে আত্মপ্রকাশ করেন। পরবর্তীতে তিনি “জানে পেহচানে সে… ইয়ে আজানাব্বি”, “লাভ ইউ জিন্দেগী” প্রভৃতি শোতে অভিনয় করেন

এরপর কালার্স চ্যানেলের জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘বালিকা বধূ’তে অভিনয়ের সুবাদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছেছিলেন সিদ্ধার্থ। ২০০৮ সালে কালার্স টিভিতে রাজস্থানে বাল্য বিবাহের ওপর নির্ধারিত ‘বালিকা বধূ’ ধারাবাহিক শুরু হয়।। এই ধারাবাহিকে নাম ভূমিকায় অভিনয় করা আনন্দী’র দ্বিতীয় স্বামী শিবরাজ শেখরের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সিদ্ধার্থ শুক্ল। এই ধারাবাহিকে সমাজের বাল্য বিবাহের মতো কুপ্রথা দেখানো হয়েছিল।

আশ্চর্যজনক ভাবে এই ধারাবাহিকের তিন প্রধান চরিত্র আজ আর আমাদের মধ্যে নেই। এই ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্রে ‘আনন্দী’ চরিত্রে অভিনয় করা প্রত্যুষা ব্যানার্জী ২০১৬ সালে আত্মহত্যা করেন। এরপর এই বছরের শুরুতে ধারাবাহিকের অন্যতম প্রধান চরিত্র দাদিসা ওরফে প্রবীণ অভিনেত্রী সুরেখা সিকরি হৃদরোগে মারা যান।

আজ বৃহস্পতিবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অকালে প্রাণ হারালেন শিবরাজ ওরফে সিদ্ধার সিদ্ধার্থের চলে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আনন্দী-শিবরাজের জুটিরও ইতি ঘটলো। স্মৃতি হয়ে গেল ‘বালিকা বধূ’ ধারাবাহিকের এই জনপ্রিয় জুটি। আপামর দর্শকের মনের মনিকোঠায় স্মৃতি হিসেবেই থেকে যাবে এই তিন চরিত্র।

Related Articles

Back to top button