Today Trending Newsটলিউডদেশবিনোদন

#wecan’tbreathe, অক্সিজেনের অভাব নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ অভিনেত্রী সাংসদ নুসরতের

দেশজুড়ে ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অভিনেত্রী

Advertisement

চলতি বছরের এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে ধীরে ধীরে করোনার সংক্রমণ গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে। নয়া মিউট্যান্ট স্ট্রেন আগের তুলনায় অনেক বেশি ভয়াবহ। এতে একদিকে যেমন সংক্রমণ বেড়ে গেছে ঠিক তেমনি অন্যদিকে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুহার। গোটাদেশে শুধুমাত্র শেষ ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমণ হয়েছে ৩ লাখের বেশি মানুষের। এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে ভারতের স্বাস্থ্যব্যবস্থার ভিত পুরোপুরি টলে গেছে। পাওয়া যাচ্ছে না করোনা রোগীদের জন্য বেড। গোটা দেশে অক্সিজেনের জন্য হাহাকার পড়ে গেছে। অনেক হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে রোগী মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। এই ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি দেখে চোখের জল আটকাতে পারলেন না টলিউড অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান। তিনি তার টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন যাতে অক্সিজেনের অভাবের কিছু মর্মান্তিক ছবি ভেসে উঠেছে।

নুসরাত জাহান তার টুইটারে যে ভিডিও পোস্ট করেছে তাকে দেখা গিয়েছে করোনা রোগীর আত্মীয়-স্বজন রোগীকে অক্সিজেন দেওয়ার জন্য দৌড়াদৌড়ি করছে। কিন্তু অক্সিজেন অমিল হাসপাতালে। একটু নিশ্বাস নেওয়ার জন্যও অক্সিজেন নেই। অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে অনেক রোগী। এই ভিডিও শেয়ার করার সাথে সাথে অভিনেত্রীর চোখ দিয়ে অশ্রুধারা বয়ে গেছে। সেইসাথে এমন ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির জন্য তিনি দায়ী করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। তিনি ক্ষোভে ফুঁসে উঠে বলেছেন, “এদিকে নিজের দেশের মানুষ অক্সিজেন না পেয়ে হাঁফাচ্ছে। আর ওদিকে প্রধানমন্ত্রী বাইরের দেশে অক্সিজেন রপ্তানি করছেন।” সেই সাথে তিনি বড় বড় হরফে লিখেছেন, “এটা অপরাধ।” সেই সাথে তিনি তার টুইটে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে লিখেছেন, “#wecan’tbreathe”।

 

অন্যদিকে, গতকাল প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধে টুইট করেছিলেন প্রশান্ত কিশোরও। তবে তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহানের টুইটার পোস্ট গোটা দেশজুড়ে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে। আসলে এই অভিনেত্রীর প্রায় ৮ লাখ ১২ হাজার ফলোয়ার আছে। অভিনেত্রীর টুইটকে অনেকেই সমর্থন করে অক্সিজেনের আকালের বিরুদ্ধে গলায় সুর তুলেছেন। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি গতকাল রাতে ট্যুইট করে জানিয়েছেন যে আজ অর্থাৎ শুক্রবার অক্সিজেনের অভাব নিয়ে তিনি উচ্চপর্যায়ের একটি বৈঠক করবেন।

Related Articles

Back to top button