নিউজপলিটিক্সরাজ্য

ডিসেম্বরেও উত্তপ্ত পাহাড়, কার্শিয়াং এ ঘরে ফেরার সভা থেকে হুমকি গুরুংদের

Advertisement

প্রবল ঠাণ্ডায় মধ্যেও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে পাহাড়ের রাজনীতি। অনিত থাপার পাল্টা রবিবার পথে নামতে দেখা গেল দার্জিলিং এর মোর্চা নেতা বিমল গুরুং। কার্শিয়াং ডিভিশনের বিমলপন্থীদের দিক থেকে একটি সভার আয়োজন করা হয়েছে। বিমলপন্থীদের তরফ থেকে বলা হয়েছে এটা ঘরে ফেরার সভা। গত সাড়ে তিন বছর গোর্খার জনমুক্তি মোর্চার বিমলপন্থী যেসব নেতারা ঘরে ফিরতে পারেননি তাদের ঘরে ফেরাতেই এই সভায় আয়োজন করা হয়েছে। সভায় উপস্থিত ছিলেন মোর্চা নেতা বিমল গুরুং এবং তার ঘনিষ্ঠ নেতা রোশন গিরি।

এইদিন রোশন গিরি বলেন, ২০১৭ সালে পাহাড় জুড়ে যে আন্দোলন করা হয়েছিল তা বিক্রি করে দিয়েছিল বিনয় তামাং এরা। দাবী আদায়ের সুবিধা হবে বলেই তিনি এবং বিমল গুরুং বিজেপির হাত ধরেছিলেন। কিন্তু দীর্ঘ অপেক্ষার পরেও বিজেপি তাদের জন্য বাঁ পাহাড়বাসীদের জন্য কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি। সেই কারণেই তারা বিজেপির সাথে সম্পর্ক ত্যাগ করে আরও একবার হাত ধরেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। আগামী দিনে পাহাড়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সাথে তারা জোট বেঁধে লড়াই করবেন বলেও জানিয়েছেন রোশন গিরি। আগামী ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরে আরও একবার নবান্ন জয় করতে সাহায্য করবেন বলে জানিয়েছেন।

অনিত থাপার পদযাত্রা জিটিএর আসন বাঁচানোর জন্য আমরা যে জনসভা করছি তা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য বললেন রোশন গিরি। কার্শিয়াং ডিভিশনের মোর্চার সমর্থকেরা দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর ধরে ঘর ছাড়া রয়েছে তাদের আজ ঘরে ফেরার পাশাপাশি এক সভার আয়োজন করেন বিমল গুরুং এবং রোশন গিরি। সিতং এ সেই সভায় অংশ গ্রহণ করতে এসে রোশন গিরি বলেন, গতকাল অনিত থাপার পদযাত্রা করছি আমরা লক্ষ্যে পোঁছানোর জন্য। যারা পাহাড়ে তাদের বাড়ি থেকে পালিয়েছিল সভাপতির নেতৃত্বের ফেরানো হচ্ছে তাদের ঘরে। ২০১৭ সালে যে আন্দোলন পাহাড় জুড়ে হয়েছিল সেই আন্দোলন কে কারা বিক্রি করেছিল? এই অনিত থাপা আর বিনয় তামাং এর মতো লোকেরাই। আমরা ভরসা করেছিলাম বিজেপির ওপরে। কিন্তু বিজেপি আমাদের বিশ্বাস রাখেনি। আমরা তাদের চাল বুঝেই সরে এসেছি নিজেদের স্থানে।

Tags

Related Articles

Back to top button