নিউজরাজ্য

একবালপুরকাণ্ডে বস্তাবন্দি তরুণীকে শ্বাসরোধ করে খুন, উল্লেখ ময়নাতদন্তের রিপোর্টে

Advertisement

একবালপুর: বস্তাবন্দি তরুনীর দেহ নিয়ে একবালপুর এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বুধবার রাত দুটো নাগাদ একবালপুরের মৌলানা মহম্মদ আলী রোডের ফুটপাতের ধারে একটি বস্তা পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় বাসিন্দারা। সন্দেহজনক মনে হওয়ায় তড়িঘড়ি একবালপুর থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় পুলিশের দল। তারপর সেই বস্তা খুলে দেখা যায় এক অজ্ঞাত পরিচয় তরুণীর মৃতদেহ বস্তাবন্দি হয়ে রয়েছে। যার গলায় হাঁসের ডাক পাওয়া যায়। তা থেকে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হয়, খুন করা হয়েছে ওই তরুণীকে। আর এই অনুমানকে সীলমোহর দিযেছে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে স্পষ্ট করে উল্লেখ করা হয়েছে যে, ওই তরুণীকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে। কিন্তু কে বা কারা এবং কেন এই খুন করেছে, তা এখনও জানা যায়নি। ঘটনার তদন্তে একবালপুর থানার পুলিশ।

প্রথমদিকে তরুনীর পরিচয় জানা না গেলেও পরবর্তীকালে জানা যায় ২২ বছরের এই তরুনীর নাম সাবা খাতুন। তবে এলাকাতে নয়না নামে পরিচিত ছিল সে। বেশ কিছুদিন ধরে বান্ধবী রেশমার বাড়িতেই থাকছিল সাবা। ঘটনার দিন বিরিয়ানি কিনতে যাওয়ার নামে সন্ধ্যেবেলা সে বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু তারপর আর তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। এমনকি তার মোবাইল ফোন সুইচড অফ ছিল বলে বান্ধবী সূত্রে জানা গিয়েছে।

তবে সবার আত্মীয় পরিজনরা জানিয়েছে সে নেশাগ্রস্ত ছিল। এমনকি এই কারণে ছ’মাস রিহ্যাব সেন্টারেও ছিল সাবা। তদন্তে নেমে একবালপুর থানার পুলিশ মৃতা তরুণীর বান্ধবী রেশমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। পরবর্তী সময়ে এই ঘটনা কোন দিকে মোড় নেয়, এখন সেটাই দেখার।

Tags

Related Articles

Back to top button