×
বলিউডবিনোদন

নিজের মেয়ে পূজা ভাটের সঙ্গে লিপলক করেছিলেন মহেশ ভাট, ছিল বিয়ে করারও ইচ্ছা

আজ ৫০ বছর বয়সে পা দিলেন পূজা ভাট

Advertisement

গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড এবং কন্ট্রোভার্সি যেন একই মুদ্রার দুই পিঠ। মাঝে মাঝেই বলি টাউনে বিভিন্ন সম্পর্কের বিতর্ক চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে আসে। বিশেষ করে এমন বিতর্কের চোরাগলিতে অনেকবারই আটকে গিয়েছিলেন বিখ্যাত সিনেমা পরিচালক মহেশ ভাট। তাঁর পরিচালিত একাধিক সিনেমা সুপারহিট হলেও, নিজের ব্যক্তিগত জীবনে অনেক বিতর্কের শরিক হয়েছিলেন তিনি। তার মধ্যে একটি বিতর্ক হল নিজের মেয়েকে চুমু খাওয়া এবং অনক্যামেরা তাঁকে বিয়ে করার ইচ্ছা প্রকাশ করা। শুনে অবাক লাগলেও, এমনটাই সত্যি হয়েছিল।

Advertisement

মহেশ ভাটের সর্বজ্যেষ্ঠ কন্যা পূজা ভাটের কথা বলা হচ্ছে এই প্রতিবেদনে। আজ পূজা ভাটের জন্মদিন। ৫০ বছর বয়সে পা দিলেন তিনি। ছোট থেকেই বাবা মহেশ ভাটের সাথে বেশ নিবিড় সম্পর্ক ছিল তার। তাঁরা একসাথে অনেক সিনেমাতেই পরিচালনার কাজ করেছেন। এছাড়াও মেয়ের সাথে এমনই সম্পর্ক ছিল যে মহেশ ভাট একটি ম্যাগাজিনের শুটিংয়ে মেয়ে পূজা ভাটকে কোলে বসিয়ে ঠোঁটে ঠোঁট রেখে চুমু খেয়েছিলেন। এছাড়াও সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, “পূজা যদি আমার মেয়ে না হতো, তাহলে ওকে বিয়ে করতে কোনো সমস্যা হতো না।”

৮০ এর দশকে ম্যাগাজিনের কভারে বাবা মেয়ের চুমুর দৃশ্য দেখে আঁতকে উঠেছিল আট থেকে আশি সকলেই। সমালোচনার ঝড় উঠেছিল দেশজুড়ে। শেষপর্যন্ত প্রাণ সংশয় এর হুমকি পেয়ে মহেশ ভাট গোটা ঘটনার জন্য সংবাদ মাধ্যমের সামনে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছিলেন। তবে সেই বিতর্কের রেশ এখনও কাটেনি। মহেশ ভাট বা পূজা ভাটের প্রসঙ্গ এলেই সেই ম্যাগাজিন কভারের কথা সবার আগে উঠে আসে।

Advertisement

এছাড়াও এক সাক্ষাৎকারে পূজা ভাট নিজে জানিয়েছিলেন যে তিনি রীতিমতো হিংসা করতেন আলিয়ার মা সোনি রাজধানকে। যেন মনে হতো তিনি তাঁর প্রতিযোগী, মহেশকে কেড়ে নিচ্ছেন। পরবর্তীকালে অবশ্য সেই ভুল ভাঙ্গে পূজার। তারপর থেকে সময়ের সাথে অনেকেই নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছিলেন পূজা ভাট।

Related Articles

Back to top button