বলিউডবিনোদন

‘জেহ’ নয় বরং মুঘল সম্রাটের নামে ছোট ছেলের নামকরণ করেছেন সইফিনা! 

×
Advertisement

সইফিনা বলিউডের জনপ্রিয় কাপল। সইফ আর করিনার এখন ভরা সংসার। দুই ছেলেকে নিয়ে দিব্যি সংসার করছেন। চার বছর আগে বড় ছেলের জন্ম দিয়েছিলেন বেবো। ভালোবেসে ছেলের নাম রেখেছিলেন তৈমুর আলি খান। কিন্তু সেই নাম নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানান বিতর্ক শুরু হয়েছিল।অনেকে মনে করেছিলেন সাইফিনা ইচ্ছাকৃত তুরস্কের স্বৈরাচারী শাসক তৈমুর লঙের নাম অনুযায়ী বড় ছেলের এইরকম নামকরণ করেন। এইভাবে ছেলের এই নামকরণ করা উচিত হয়নি বলে মনে করছেন একাংশ। বেবো জানিয়েছিলেন, তাঁদের বড় ছেলের নামের আসল অর্থ ফারসি ভাষায় ‘লোহা’।

Advertisement

এই বছর ২১ শে ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় সন্তানে মা হয়েছেন করিনা কাপুর খান। সইফিনার দ্বিতীয় সন্তানের আগমনের পর থেকেই খুদে নবাবকে নিয়ে উৎসাহের শেষ নেই নেটানাগরিকদের মধ্যে। বড় ছেলের মতো ছোট ছেলের ক্ষেত্রে এক জিনিস করেননি। তৈমুর জন্মের সাথে সাথে পাপারিজ্জদের সামনে এসেছিলেন তেমন ভাবে খুদে নবাব কারোর সামনে আসেনি। তবে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের দিন দ্বিতীয় সন্তানের ঝলক প্রকাশ্যে এনেছিলেন করিনা। কিন্তু ছেলের পুরোপুরি মুখ এখনো কাউকে দেখাননি।

Advertisement

এমনকি ছেলের নামকরণ নিয়ে সেভাবে কিছু বলেননি। গত মাসেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস হয়ে যায় সইফ-করিনার ছোট ছেলের নাম। আসলে করিণার বাবা রণধীর কাপুর ভুলবশত এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে নাতির নাম লিখে ফেলেছিলেন। অবশ্য সাথে সাথে ডিলিট করে দেন কিন্তু ততক্ষণে সেই পোস্টের স্ক্রিনশট ভাইরাল হয়ে যায়। পরে মুম্বইয়ের এক সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারেই দাদু রণধীর বলেছিলেন, সইফিনার ছোট ছেলের নাম। ছেলেকে ভালোবেসে ‘জেহ’ নাম রাখা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, প্রায় এক সপ্তাহ আগে এই নামটা ঠিক করা হয়।

এতদিন সকলে জানত পতৌদি পরিবারের ছোট নবাবের নাম জেহ কিন্তু এর মাঝেই গত সোমবার সব হিসাব উল্টে গেল। এদিন এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে করিনা কাপুরের ছেলের আসল নাম। সেখানেই বলা হয়েছে অভিনেত্রীর লেখা ‘প্রেগন্যান্সি বাইবেল: দ্য আল্টিমেট ম্যানুয়েল ফর মম টু বি’ আর এই বইয়ের শেষ পাতায় ছোট ছেলের আসল নাম। গোটা বই জুড়েই ছোট ছেলেকে জেহ নাম ব্যবহার করলেও বইয়ের প্রায় শেষে একটি ছবির ক্যাপশনে ‘জাহাঙ্গীর আলি খান’ নামটি ব্যবহার করা হয়েছে।

এখনও পর্যন্ত এই জাহাঙ্গীর নামের অর্থ বা  কী ভাবনা থেকে এই নাম রেখেছেন সইফিনা তা জানা যায়নি। অনেকে মনে করছেন, মুঘল সম্রাটের নামেই কি এই নামকরণ করলেন অভিনেত্রী? কেন এই নাম রেখেছেন সইফিনা তা কিছুই জানা যায়নি। সেই নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি সইফ-করিনা। অন্যদিকে ‘জাহাঙ্গীর’ নামটির উৎপত্তিও ফারসি ভাষাতেই মেলে। ‘জাহান’ শব্দের অর্থ বিশ্ব আর জাহানঙ্গীর শব্দের মানে হল ‘এই বিশ্বের রাজা’। উল্লেখ্য, মোঘল সম্রাট আকবর পুত্রের নামও হল জাহাঙ্গীর। 

 

Related Articles

Back to top button