×
জীবনযাপনস্বাস্থ্য ও ফিটনেস

ময়েশ্চারাইজার কি শুধুই মুখের জন্য, ফাটা গোড়ালির যত্নের জন্য নয়?

Advertisement

একটা জিনিস খেয়াল করেছেন কি যখনই শারদীয়ার উৎসব শেষ হয় অর্থাৎ যখনই আমরা কার্তিক – অগ্রহায়ণ মাসের দিকে ঢুকতে থাকি তখনই আমাদের শরীরের চামড়া গুলো ফাটতে শুরু করে। সম্পূর্ণ শরীর বললে ভুল হবে তবে শরীরের বিশেষ কিছু অংশ যেমন পায়ের গোড়ালি বা হাতের চেটো, ঠোঁট এই ধরনের অংশগুলো হালকা হালকা ফাটা শুরু করে। পুজোর আগে হয়তো আপনিই পার্লারে গিয়েছেন ফেসিয়াল করেছেন অথবা মেনিকিউর-পেডিকিউর করেছেন, কিন্তু পুজোর পরে অনেকেই পার্লার যাওয়া বন্ধ করে দেন। যারা নিয়মিত পার্লারে যান তাদের কথা না হয় বাদই দিলাম কিন্তু যারা ঘরের কাজে ব্যাস্ত থাকেন, যারা পরিবারকে সময় দেয়ার পর নিজের যত্ন নিতে পারেন না আজকে আর্টিকেলটি শুধুমাত্র তাদের জন্য। হ্যাঁ আজকে আমাদের বিষয় হলো ফাটা গোড়ালিকে জব্দ করা। শীতকালে যাদের পা ফাটে অর্থাৎ পায়ের গোড়ালি ফাটতে শুরু করে তাদের জন্য রইল ঘরোয়া কিছু টিপস। চলুন এক এক করে দেখি নিই সেই টিপসগুলো।

Advertisement
  • প্রথমত পা শুধুমাত্র সাবান দিয়ে পরিষ্কার করবেন না। আপনি হালকা গরম জলে একটু খাবার সোডা মিশিয়ে রাখতে পারেন। এক চামচ খাবার সোডা মিশিয়ে রাখুন। এরপর সেই ঈষদুষ্ণ জনে আপনার পায়ের পাতা দুটি ডুবিয়ে রাখুন। মিনিট পনেরো ডুবিয়ে রাখার পর একটা ছোট্ট ব্রাশ নিন এবং নখের কোনা গুলো ভালো করে ঘষুন এবং পায়ের গোড়ালিতে ঘষতে থাকুন।নিজেই দেখবেন সাদা সাদা চামড়া গোড়ালি থেকে উঠে আসছে। কিছুক্ষণ ঘষার পর পা হালকা করে জলে ধুয়ে নিন এবং নারকল দিয়ে ৫ মিনিট অথবা ১০ মিনিট ধরে মালিশ করুন।
  • রাত্রিবেলায় শোবার আগে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। আপনি মুখে যেমন ময়েশ্চারাইজার ইউজ করেন বা ক্রিম ব্যাবহার করেন সেরকমই গোড়ালিতে একটু মোটা করে প্রলেপ দিন। অনেকে অ্যান্টিসেপটিক ক্রিম ইউজ করে সেটাও ভালো। ক্রিম লাগানোর পরে কিছুক্ষণ বসুন তারপরে পায়ের সুতির মোজা পড়ে থাকুন। যাদের পা ফাটার সমস্যা অত্যাধিক রয়েছে তারা সুতির মোজা সাথে যদি জুতো পড়েন পা ঢাকা তবে তাদের পা ফাটার প্রবলেম অনেকটা কম হবে।
  • আপনার বাড়িতে যদি নারকেল তেল না থাকে তবে আপনি দুধের সর ব্যবহার করতে পারেন। হয়তো ভাবছেন দুধের সর না খেয়ে পায়ে মাখবো একটু বেশি বাড়াবাড়ি হয়ে গেল না? না একদমই বাড়াবাড়ি হল না। মাথায় রাখবেন আপনি যা খেতে পারবেন আপনি তা শরীরের জন্য ব্যবহার করতে পারেন। আপনি সপ্তাহে তিনদিন এই কাজটি করুন। তবে হ্যাঁ, ক্রিম লাগান অথবা ময়েশ্চারাইজার লাগান বা দুধের সর যাই করুন না কেন প্রথমে পা শ্যাম্পু দিয়ে অথবা সাবান দিয়ে অথবা খাবার সোডা দিয়ে ভালো করে পরিস্কার করে দেবেন।

Related Articles

Back to top button