×
টেক বার্তা

মাত্র ১৬,৯৯৯ টাকা মূল্যে পেয়ে যান দামি আইফোন, অফার দিচ্ছে ফ্লিপকার্ট

শুধু এটুকুই না এর সাথেও আপনি আরো কিছু অফার পাচ্ছেন ফ্লিপকার্ট এর তরফ থেকে

Advertisement

এই মুহূর্তে প্রত্যেক ভারতবাসী চায় যেন তার কাছে একটা আইফোন থাকে। আইফোন এই মুহূর্তে অনেকের ক্ষেত্রে একটা সম্মানের চিহ্ন হয়ে উঠেছে। পাশাপাশি এই আইফোন ব্যবহার করাও অন্যান্য অ্যান্ড্রয়েড ফোনের থেকে অনেক বেশি প্রিমিয়াম। বিশেষত এই কারণেই এই মুহূর্তে বাজারে রমরমা চলছে আইফোনের। তবে আইফোন শুধুমাত্র যে একটি স্টাইল স্টেটমেন্ট তাই কিন্তু নয়, আইফোন কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রে তাদের স্বপ্নের ফোন। কিন্তু আইফোনের অতিরিক্ত দামের জন্য অনেকেই এমন আছেন যারা আইফোন কিনতে পারছেন না। তাদের জন্য একটি সুখবর নিয়ে এলো ফ্লিপকার্ট। এবারে আপনারা আপনাদের পছন্দের আইফোন কিনে নিতে পারবেন মাত্র ১৬,৯৯৯ টাকার বিনিময়। তবে কোনো হাই এন্ডের আইফোন আপনি পাবেন না, আপনি পেয়ে যাবেন আইফোন SE 2020। এই ফোনটির আসল দাম মোটামুটি ৪০,০০০ টাকার কাছাকাছি। কিন্তু এই মুহূর্তে ফ্লিপকার্টে একটি দুর্দান্ত অফার চলছে, যা ব্যবহার করলে আপনি ১৬,৯৯৯ টাকায় কিনে নিতে পারবেন একটি ব্র্যান্ড নিউ আইফোন। হ্যাঁ তবে জানিয়ে রাখি, এই দামে কিন্তু আপনি iPhone SE 2020 এর শুধুমাত্র লাল রংয়ের ভেরিয়েন্ট পাবেন।

Advertisement

এই আইফোনে আপনারা পেয়ে যাচ্ছেন ৪.৬ ইঞ্চির রেটিনা এইচডি ডিসপ্লে, স্পোর্টস ১২ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। ৭ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। এছাড়াও থাকছে থার্ড জেনারেশন নিউড়াল ইঞ্জিন প্রসেসর, A13 বায়োনিক চিপসেট, এবং আরো অনেক কিছুই। কিন্তু এত কিছু থাকা সত্ত্বেও আপনি এই আইফোন কিনতে পারবেন মাত্র ১৬,৯৯৯ টাকায়। ইতিমধ্যে এই অফারটি ভারতীয়দের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। চলুন এই অফারের ব্যাপারে আরও বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

ফ্লিপকার্টের লিস্টিং অনুযায়ী iPhone SE 2020 এর লাল রঙের ৬৪ জিবি ভেরিয়েন্টের এই মুহূর্তে দাম ৩৯,৯০০ টাকা। তবে এই মুহূর্তে ফ্লিপকার্ট ওয়েবসাইটে ২৪ শতাংশ ডিসকাউন্ট দেওয়া হচ্ছে এই আইফোন এর উপরে। এর ফলে এই আইফোন আপনারা পেয়ে যাচ্ছেন মাত্র ২৯,৯৯৯ টাকায়। অর্থাৎ আপনারা করতে পারছেন ৯,৯০১ টাকা সেভিংস। তবে অফার এখানেই শেষ হয়নি। যদি আপনি এই অফার গ্রহণ করার সাথে সাথে আপনার পুরনো ফোন এক্সচেঞ্জ করেন তাহলে আপনি অতিরিক্ত ১৩,০০০ টাকা সেভ করতে পারবেন। তবে তার জন্য কিছু বিশেষ শর্ত রয়েছে। আপনার ফোনে যদি কোনরকম ড্যামেজ না থাকে, অর্থাৎ আপনার ফোন একেবারে ভালো কন্ডিশনে থাকে, কোনরকম স্ক্রীন ড্যামেজ, কোনরকম স্ক্র্যাচ কিছুই না থাকে, তাহলে আপনারা আপনার পুরনো ফোনের জন্য ভালো এক্সচেঞ্জ ভ্যালু পেয়ে যাবেন। তবে মনে রাখবেন, আগে আপনার পিন কোড দিয়ে দেখে নেবেন আপনার বাড়িতে এক্সচেঞ্জ অপশন রয়েছে কিনা।

Advertisement

তার সাথে সাথেই ফ্লিপকার্ট এর তরফ থেকে বেশকিছু ব্যাংক অফার এবং কিছু ফ্রীবিজ দেওয়া হচ্ছে। ব্যাঙ্ক অফারগুলির মধ্যে রয়েছে অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ডে ১০ শতাংশ ছাড়, ৫,০০০ টাকা বা তার বেশির অর্ডারে ৭৫০ টাকা পর্যন্ত ছাড়; এবং ফ্লিপকার্ট অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক কার্ডে ৫ শতাংশ ক্যাশব্যাক৷ এছাড়াও আপনি এখানে বিনামূল্যে আপনি ৬ মাসের গানা প্লাস সাবস্ক্রিপশন এবং বাইজুস ক্লাসের অনলাইন টিউশন প্যাক পেতে পারেন। এছাড়াও, আপনি এটিকে প্রতি মাসে ১,০২৬ টাকার প্রাথমিক ইএমআই দিয়ে বাড়িতেও আনতে পারেন।

Related Articles

Back to top button