গত শুক্রবার ভারতের মুম্বাই ও পুনে এই দুটি শহরের অভ্যন্তরে প্রথম চালু হল বৈদ্যুতিক বাস পরিষেবা। কেন্দ্রীয় পরিবহন মন্ত্রী নিতিন গাদকরি গত শুক্রবার এই বৈদ্যুতিক বাস পরিষেবা চালু করেন। বাসটি চলবে মুম্বাই ও পুনের মধ্যে। এই পরিষেবার সাথে যুক্ত কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগামী দিনে তারা এর পরিষেবা আশেপাশের সংলগ্ন রাজ্যগুলিতেও বাড়াতে ইচ্ছুক। এই বৈদ্যুতিক বাসটিতে রয়েছে মোট ৪৩টি আসন, যা যাত্রীসমেত ৩০০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে সক্ষম। যাত্রীরা এই বাসটির পরিষেবা দিনে দুবার উপভোগ করতে পারবেন। মুম্বাই ও পুনে শহরের মধ্যে বাসটি দিনে দুবার চালিত হবে।

এদিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গাদকরি জানিয়েছেন, গত ৪-৫ বছরের চেষ্টায় আজ তিনি সফল। তিনি বিগত ৪-৫ বছর থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করেছিলেন যাতে এই শহর দুটির মধ্যে বৈদ্যুতিক বাস চলাচলের সুযোগ করে দিতে পারেন মানুষের কাছে। তা অবশেষে সম্ভব হল।

আপনার জন্য নির্বাচিত

আরও পড়ুন : দিল্লি নির্বাচনে হারের পর, বিজেপির নজর বাংলার পুরভোট

এরপর তিনি জনসাধারণের প্রতি আস্থা জ্ঞাপন করে বলেন, বিভিন্ন কর্পোরেশন, রাজ্য সরকার কর্পোরেশন এবং বেসরকারী অপারেটররা এ বছর প্রায় ১০,০০০ বৈদ্যুতিক বাসের পরিষেবা চালু করবে এবং এই বৈদ্যুতিক বাসগুলির সুচারু কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কেন্দ্র সরকার ই-বৈদ্যুতিক মহাসড়ক তৈরির পরিকল্পনা করেছে। এরপর তিনি আরও জানান, দিল্লি-মুম্বাই এক্সপ্রেস ওয়েতে প্রস্তাবিত বৈদ্যুতিক লেনটির উন্নতির জন্য সরকারী বিনিয়োগের পাশাপাশি বেসরকারি বিনিয়োগের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন, যার কাজ আগামী তিনবছরের মধ্যে শেষ হবে।

সব খবর পড়তে আমাদের WhatsApp গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!