Today Trending Newsদেশনিউজ

৪৫ বছরে প্রথম, ভারত-চিন সংঘাতের আবহে নিয়ন্ত্রণরেখায় চলল গুলি

লাদাখ: যতদিন যাচ্ছে ভারত-চিন সীমান্তের পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে পড়েছে। চিনা আগ্রাসন করোনা পরিস্থিতির মধ্যে দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর এবার সোমবার ভোররাতে লাদাখ বর্ডারে চলল গুলি। জানা গিয়েছে, পূর্ব লাদাখের প্যাংগং লেকের দক্ষিণ প্রান্তে অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করে চিনা সেনা। এর ফলে দীর্ঘ ৪৫ বছর পর পূর্ব লাদাখের প্যাংগং বর্ডারে গুলি চালানো হয় ভারতীয় সেনার তরফ থেকে।

জানা গিয়েছে, এদিন ভোর রাতে লাল ফৌজের দল পেট্রোলিং করার সময় ভারতীয় সীমান্তের দিকে এগিয়ে আসে। বহুবার তাঁদের অ্যালার্ট করা হলেও চিনা সেনা তাতে এতটুকু কর্ণপাত করেনি। শেষমেষ ভারতীয় সেনারা বাতাসের দিকে লক্ষ্য করে গুলি করতে বাধ্য হয়। ভারতীয় সেনারা গুলি করার পর সতর্ক হয়ে যান চিন সেনা। তারপর তাঁরাও নিজেদের সীমায় ফিরে যান। শুধু তাই নয়, নিজেদের সীমারেখায ফিরে যেতে যেতে তাঁরাও কাউন্টার করে গুলি চালান বলে সূত্রের খবর।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই লাদাখ সফরে গিয়েছিলেন সেনাপ্রধান মনোজ মুকুল নারাভানে। সেখানে গিয়ে তিনি কার্যত লাল ফৌজদের কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। তারই প্রতিফলন এই ঘটনা নাকি এর পেছনে বড় কোনও ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত রয়েছে, তা অবশ্য এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। এর পাশাপাশি সেনাপ্রধান এমনটাও জানিয়েছিলেন যে, সীমান্তের পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। শুধু তিনিই নন, বিদেশমন্ত্রী পর্যন্ত এ কথা জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, রাশিয়ায় সম্প্রতি প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে চিনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেলের বৈঠক হয়। যদিও দীর্ঘ আড়াই ঘণ্টা বৈঠকের পর ভারত-চিন সীমান্তের উত্তেজনা নিয়ে কোনও সমাধানসূত্র মেলেনি। উল্টে চিনের তরফ থেকে জানানো হয় তাঁরা ভারতকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়বে না। এ হেন পরিস্থিতিতে লাদাখে দীর্ঘ ৪৫ বছর পর ভারতীয় সেনাদের গুলি চালানোর ঘটনা তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

Tags

Related Articles

Back to top button