BB Specialম্যাগাজিন

রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে কেমন সম্পর্ক ‘নতুন বউঠানের’, জেনে নিন কাদম্বরীর মৃত্যু রহস্য

শ্রেয়া চ্যাটার্জি – সমবয়সী কাদম্বরী সঙ্গে রবীন্দ্রনাথের সম্পর্ক কেমন ছিল? এনিয়ে সমাজে নানান রকম গুঞ্জন।কাদম্বরী ছিলেন বাঙালি নাট্যকার সংগীতস্রষ্টা সম্পাদক এবং চিত্রশিল্পী জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্ত্রী, মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের পুত্রবধূ এবং বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নতুন বৌঠান। ৫ ই জুলাই ১৮৫৯ সালে কলকাতায় কাদম্বরীর জন্ম। পৈত্রিক নাম মাতঙ্গিনী। তিনি ছিলেন ঠাকুরবাড়ির বাজার সরকার শ্যাম গাঙ্গুলীর তৃতীয় কন্যা। মাত্র ৯ বছর বয়সে ১৯ বছর বয়সী জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুরের সঙ্গে বিয়ে হয়ে যায় তার। এরপর যতীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর শিক্ষার বন্দোবস্ত করে দেন। তাঁর পিতামহ জগন্ময় গঙ্গোপাধ্যায় ছিলেন একজন গুণী সংগীতশিল্পী, তার থেকে কাদম্বরী এবং রবীন্দ্রনাথ গান শিখেছিলেন।

আজকের দিনে অর্থাৎ একুশে এপ্রিল মাত্র ২৫ বছর বয়সে তিনি মারা যান। জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবার এই আত্মহত্যার বিষয়ে একেবারে নীরব ছিলেন। ধরে নেওয়া হয়, পারিবারিক সমস্যার কারণেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। হিন্দু প্রথা অনুযায়ী, তাকে মর্গে পাঠানো হয়নি। জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়িতে বসানো হয়েছিল কোর্ট।

পরে মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ এর উদ্যোগে এই কোর্টের রিপোর্ট লোপাট করা হয় এবং লোপাট করা হয়েছিল কাদম্বরীর সুইসাইড নোট। ৫২ টাকা ঘুষ দিয়ে মুখ বন্ধ করা হয়েছিল সংবাদমাধ্যমের। তার মৃত্যুর খবর ছাপা হয়নি কোন সংবাদপত্রেও। রবীন্দ্রনাথের বিবাহের চার মাস পরে ১৯ শে এপ্রিল আফিম খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন। ২১ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন।

Related Articles

Back to top button