×
বলিউডবিনোদন

কীভবে বিয়ে করেছিল অমিতাভ-জয়া? বলিউডের গল্প হার মানাবে এই জুটি

Advertisement

বিটাউনে অনেক জুটি হয়েছে। অনেকের সম্পর্কে ভাঙন ধরেছে। তবে এই জুটির জীবনে যত সমস্যা ৪৮ বছর ধরে একসাথে সব যুদ্ধ জয় করেছে। হ্যাঁ এরা আর কেউ নন অমিতাভ বচ্চন আর জয়া বচ্চন। রুপোলি পর্দাতে এই জুটি প্রথম কাজ করেছেন। ‘বংশী বিরজু’ ছবিতে এই জুটি প্রথম অভিনয় করেন। এরপর ‘চুপকে চুপকে’, ‘অভিনান’, ‘সিলসিলা’, ‘প্যায়ার কা ঘার’, ‘এক নজর’, ‘শোলে’ সিনেমাতে একের পর এক হিট দিয়েছেন অভিনেত্রী। বিটাউনের এই জুটির প্রেমকাহিনি শুরু বিটাউন থেকেই এদের রুপকথার পরিণতি।

Advertisement

সেই সময় বলিউডে এই জুটির প্রেমকাহিনি বেশ চর্চায় ছিল। সেই সময়ে অমিতাভ আর জয়ার প্রেমকাহিনী কারোরই অজানা ছিলনা। এমনকি তাঁদের পরিবারের কাছে। ওদের প্রেমের মাঝেই বলিউডে বিগ হিট হয় ১৯৭৩ সালে’জঞ্জির’ সিনেমা। এই সিনেমা বলিউড সিনেমাতে এক ইতিহাস রচনা করে। আর সিনেমার সাক্সেস পার্টি হওয়ার কথা ছিল লন্ডনে। এই ছবির সাফল্য উদযাপন করতে লন্ডন যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন তাঁরা। সাথে এই সিনেমার অন্যান শিল্পীদের যাওয়ার কথা ছিল।

Advertisement

তবে এই যাওয়ার সময় অমিতাভের হরিবংশ রাই বচ্চন ছেলেকে প্রশ্ন করে ওঠেন, কারা যাচ্ছো? এর উত্তরে বলেন সবার সাথে লন্ডনে যাওয়ার কথা বলেন। সাথে জয়ার যাওয়ার কথাও বলেছিলেন অভিনেতা। এই উত্তর শোনার পর নির্দেশ এল এর আগে জয়াকে বিয়ের নির্দেশ দেন। তারপর তাঁকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। এরপর তিনি বাধ্য ছেলের মতো বাবুজির কথা মেনে নিয়েছেন। এরপর তড়িঘড়ি দুই বাড়ি থেকে এদের বিয়ের আয়োজন করা হয়। মালাবার হিলে জয়ার এক বন্ধুর বাড়িতে বিয়ে হয় আজকের এই সেলিব্রেটি জুটির।

এক তীরে দুটো কাজ সেরেছিলেন এই জুটি। একদিকে জঞ্জির সিনেমাত সাফল্য সেলিব্রেট করা হয়েছেম একই সঙ্গে লন্ডনে মধুচন্দ্রিমাও সেরে ফেলেন এই দম্পতি। আজ সেই দিন, যে দিন নিজেদের প্রেমকে পরিণতি দিয়েছিলেন অভিনেতা। আজ বিয়ের দিনের স্মৃতিচারণায় অমিতাভ তাঁর ব্লগে লিখেছিলেন, ‘খুব সাধারণ ভাবে বিয়ের দিন তৈরি হয়েছিলেন। মালাবার হিলে জয়ার বন্ধুর বাড়িতে যেখানে বিয়ে করেছিলেন সেখানে নিজেই গাড়ি চালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। তাঁর ড্রাইভার নাগেশ রীতিমতো ঠেলে নামিয়ে দিয়ে নিজে চালিয়ে যান এর জন্য ঘোড়ায় চড়ে বিয়ে করতে যাওয়া হয়নি। প্রতিবেশীরা তাঁকে রীতিমতো গাড়ি থেকে বের করে নিয়ে যাচ্ছিলেন। তবে সেই বৃষ্টি বাঁচিয়ে দিয়েছিল। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বিয়ের অনুষ্ঠান হয়ে গিয়েছিল, মিস্টার অ্যান্ড মিসেস…।’ এই ভাবে জয়া হন মিসেস বচ্চন। শেষবার এই জুটিকে ‘কি অ্যান্ড কা’ সিনেমাতে অভিনয় করেন।

Related Articles

Back to top button