টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদনভাইরাল & ভিডিও

Rachana Banerjee: নিজের ঘরে ফিরে এলেন সকলের প্রিয় দিদি রচনা! রইলো ভিডিও

×
Advertisement

বহুদিন ধরেই টলি ইন্ডাস্ট্রির সাথে যুক্ত রয়েছেন অভিনেত্রী রচনা ব্যনার্জি। একসময়ে বাংলা দর্শকদের হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন। শুধু বাংলা না হিন্দি আর দক্ষিণী ইন্ড্রাস্টিতে চুটিয়ে অভিনয় করেছেন তিনি। এখন অভিনয় না করলেও টেলিভিশনে প্রতিদিন দর্শকের সাথে সুসম্পর্ক স্থাপন করেছেন। ‘দিদি নং 1′ দিয়ে রচনা ব্যানার্জি হয়ে উঠেছেন সকলের প্রিয় দিদি।

Advertisement

তবে চলতি মাসে নিজের জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষকে অভিনেত্রী হারিয়েছেন। পিতৃহারা হয়েছেন অভিনেত্রী। ১৫ নভেম্বর প্রয়াত হন অভিনেত্রীর বাবা রবীন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪।অভিনেত্রীর বাড়িতেই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তাঁর বাবা।। অভিনেত্রীর কাছে তাঁর বাবা ছিলেন বন্ধুসম। জীবনের দর্শন আর মানুষের মতো মানুষ হতে শিখেছিলেন তাঁর বাবার কাছ থেকেই। কীভাবে জীবনকে সুন্দর করে সাজিয়ে তুলতে হয়, তা পুরোটাই বাবা তাঁকে হাতে ধরে শিখিয়েছেন রচনাকে। সিনেমাজগতের সঙ্গে হয়তো রবীন্দ্রনাথ বাবু সরাসরি যুক্ত ছিলেননা তবে রচনার কাছে তাঁর বাবা বড় স্টারের থেকে কম ছিলেন না। অভিনেত্রী নিজের জীবনের বেশিরভাগ সময় তিনি কাটিয়েছেন নিজের বাবার সাথে দক্ষিণ কলকাতার গোলপার্ক অঞ্চলের ‘মেঘমল্লার’ নামে এক বহুতলে।

বাবার মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। এই সময় কাজ থেকে বিরতি নিয়েছিলেন। সদ্য বাবার পারলৌকিক ক্রিয়ার আয়োজন করেছিলেন রচনা। তাঁকে সমবেদনা জানাতে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। ইন্ডাস্ট্রির তরফ থেকে উপস্থিত ছিলেন কৌশিক বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মতো ব্যক্তিত্বরা। সদ্য ফেসবুকে বাবার একটি ছবি শেয়ার করেছেন রচনা। তিনি লিখেছেন, ‘আমার বাপি… ভাবিনি একদিন একা হয়ে যাব। ভাবিনি তুমি চলে যাবে এখনও অনেকগুলো বছর তোমাকে ছাড়া কাটাতে হবে। তোমার আশীর্বাদ আমাদের সাথে আছে আমি জানি। থাকবো…. থাকতে হবে। তুমি ভালো থেকো বাপি।’

Advertisement

গত বেশ কয়েক বছর ধরে রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিচয় ‘দিদি নম্বর ওয়ান’। এই রিয়ালিটি শোয়ের সঞ্চালিকা হিসেবে আরো জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছেছেন। কিন্তু ব্যক্তিগত এই ক্ষতি সামলে উঠতে কিছুটা সময় নিয়েছিলেন তিন। সে কারণেই এই রিয়ালিটি শো থেকে সাময়িক বিরতি নিয়েছেন তিনি। তাঁর জায়গায় সঞ্চালকের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন সুদীপা চট্টোপাধ্যায় এবং সৌরভ দাস। তবে সকলে দিদির জন্য অপেক্ষা করছিলেন।

বাবার শোক হয়তো কাটাতে এত তাড়াতাড়ি পারেননি তবে নিজের অনুরাগীদের ভালোবাসায় শনিবার কাজে ফেরেন অভিনেত্রী। এদিন জি বাংলার তরফ থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। এদিন রচনা বললেন,সোমবার থেকে বিকেল ৫টায় সকল দর্শকদের সামনে আসবেন আবার সকল দিদিদের সাথে খেলবেন। এই কদিন সুদীপা আর সৌরভকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন এই কদিন তাঁর হয়ে কাজ করার জন্য। এরপরেই অনুরাগীরা ভালোবাসা জানিয়েছেন। নিমেষে ভাইরাল হয় এই ভিডিও।

Related Articles

Back to top button