ব্যবসা-বানিজ্য ও অর্থনীতি

১০ টাকার নোটে লেখা এই নম্বর, ঘরে বসে পেয়ে যান ৪০ লাখ টাকা, শুধুমাত্র করুন এই কাজ

৭৮৬ নম্বর নোট শুধুমাত্র মুসলমানদেরই নয়, সব ধর্মের মানুষই ভাগ্যবান বলে বিবেচনা করে থাকেন

Advertisement
Advertisement

অনেকেরই পুরনো দিনের কয়েন বা টাকা জমানোর শখ থাকে। কিছু সময় ব্রিটিশ আমলের বা তার থেকেও পুরনো বিভিন্ন কয়েন নিলামে ওঠে। একটি কয়েনের পরিবর্তে লক্ষাধিক টাকা দেওয়ার জন্য রাজি থাকেন ক্রেতারা। তবে পুরনো কয়েনের পাশাপাশি আজকাল কিছু পুরোনো বা বিশেষ ধরনের টাকার মূল্য অনেক বেশি পাওয়া যায়। তবে এখন আর আগের মত নিলাম করে এইসব বিক্রি হয় না। বরং পদ্ধতি আরও অনেক বেশি সহজ হয়ে গিয়েছে। বিভিন্ন অনলাইন ওয়েবসাইটে বিশেষ নাম্বারের বা বিশেষ ধরনের পুরনো টাকা বেশ চড়া দামে বিক্রি হয়ে থাকে। আপনি জানলে অবাক হবেন যে মাত্র ১০ টাকার নোট বিশেষ কিছু ওয়েবসাইটে বিক্রি করলে ৪ লাখ টাকা অব্দি পেতে পারেন। কিন্তু কি করে? পদ্ধতি জানতে আজকের এই প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

Advertisement
Advertisement

আপনাদের জানিয়ে রাখি সম্প্রতি একটি খবর সামনে এসেছে যে কিছু বাজারে পুরনো নোটের চাহিদা ব্যাপক। এই নোটের বদলে আপনাকে দেওয়া হতে পারে লাখ থেকে কোটি কোটি টাকা। এই নোটে ৭৮৬ নম্বর রয়েছে। কারণ ৭৮৬ নম্বরটিকে ইসলামের পবিত্র সংখ্যা হিসাবে বিবেচনা করা হয়, যার কারণে ইসলামিক দেশগুলিতে এর কদর বেশি। আর এই জন্য এই ধরনের দেশের মানুষ বিপুল পরিমাণ টাকা দেয় ওইসব নোট কিনে নেওয়ার জন্য। মনে রাখবেন যে ৭৮৬ নম্বরটিকে ইসলামে ভাগ্যবান হিসাবে বিবেচনা করা হয়। আর মুসলমানরা ধর্মকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়। ৭৮৬ নম্বর নোট শুধুমাত্র মুসলমানদেরই নয়, সব ধর্মের মানুষই ভাগ্যবান বলে বিবেচনা করে থাকেন। এই নম্বরের ১০ টাকার নোট বিক্রি করে আপনি পেয়ে যেতে পারেন ৪ লাখ টাকা। আপনার কাছে এই ১০ টাকার নোট ১০ টি থাকলে ঘরে বসে উপার্জন করে নিতে পারবেন ৪০ লাখ টাকা।

Advertisement

এই ধরনের টাকা কেনাবেচা করার জন্য জনপ্রিয় কয়েকটি ওয়েবসাইট হল eBay, CoinBazaar, Indian Old Coin এবং Click India। এই সমস্ত ওয়েবসাইটে অনেক মানুষ একটি কারেন্সি নোটের পরিবর্তে লক্ষাধিক টাকা খরচ করার জন্য প্রস্তুত থাকে। অনেকেই কারেন্সি নোটে ৭৮৬ নাম্বার থাকলে তা অনেক টাকা দিয়ে কিনতে রাজি হয়ে যায়। এছাড়া সম্প্রতি ২ টাকার পুরনো পিংক রংয়ের কারেন্সি নোটের চাহিদা ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। একটি ২ টাকার নোটের পরিবর্তে ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা অব্দি পেয়ে যেতে পারেন আপনি। আর সমস্ত কিছু অনলাইন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পরিচালিত হওয়াই কেনাবেচার ক্ষেত্রে কোন রকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় না। আপনার কাছেও যদি এরকম বিশেষ নাম্বারের কারেন্সি নোট থাকে তাহলে আপনিও এক ঝটকায় হয়ে যেতে পারেন লাখপতি।

Advertisement
Advertisement
Advertisement

Related Articles

Back to top button