নিউজরাজ্য

দলবেঁধে গঙ্গায় যাবেন না, ছট পুজোর আগে অনুরোধ মুখ্যমন্ত্রীর

Advertisement

ছট পুজো প্রায় আসন্ন। আর এই ছট পুজোর সময় গঙ্গা এবং অন্যান্য জলাশয়ের ধারে থেকে উপচে পড়া ভিড়। কিন্তু এবছর করোনাভাইরাসের কারণে পরিস্থিতি কিছুটা অন্যরকম। তাই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকলকে বাড়িতে থেকে ছট পুজো পালনের পরামর্শ দিলেন। একটি ভিডিও কনফারেন্স মারফত মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা ভিড় করে গঙ্গা অথবা অন্যান্য জলাধারে যাবেন না। ছট পূজা পালন করুন কিন্তু আদালতের অবমাননা করবেন না। এই বছর কোথাও ভিড় করবেন না। এবছরের পরিস্থিতিটা একেবারেই অন্যরকম।

মুখ্যমন্ত্রী স্মরণ করিয়ে দিলেন, এবছরের দুর্গাপূজা এবং কালী পূজোতে সমস্ত ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হয়েছে। পাশাপাশি, কালী পূজার সময় এবছর বাজিতেও নিষেধাজ্ঞা ছিল। সেই কথা মনে করিয়ে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বললেন, একই নিয়ম ধার্য হয়েছে ছট পুজোর জন্যও। কলকাতায় কালী পূজা এবং দুর্গাপূজাতে যেভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হয়েছে সেভাবেই ছট পুজো পালনের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কলকাতা এবং শহরতলীতে প্রায় ১.৫ হাজার জলাশয় নির্ধারিত করা হয়েছে ছট পুজোর জন্য। এতগুলি জলাশয় নির্ধারিত করার কারণ, যাতে ছট পুজোতে কোনো রকম ভিড় না হয়।

অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের দুটি জনপ্রিয় জলাশয় এবং ভ্রমণের স্থান সুভাষ সরোবর এবং রবীন্দ্র সরোবরে সম্পূর্ণরূপে ছট পুজো বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পরিবেশ আদালত এই মর্মে রাজ্য সরকারকে কড়া নির্দেশ দিয়েছে। সেই নির্দেশিকা বহাল রেখে রাজ্য সরকারকে কড়া বার্তা দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের কড়া বার্তা, প্রত্যেক পরিবার থেকে সর্বাধিক দুইজন ছট পুজো করতে জলাশয় যেতে পারবে। ঢাক অথবা ছোট বাদ্যযন্ত্র ছাড়া আর কিছু বাজানো যাবে না। বিদ্যুৎ চালিত ডিজে জাতীয় বাদ্যযন্ত্র তো একেবারেই নয়। এবছর কোন শোভাযাত্রা করা যাবে না। খোলা গাড়িতে করে জলাশয়ে আসতে হবে। যারা পুজো তে অংশগ্রহণ করবেন তাদের সবাই জলাশয়ে যাবার অনুমতি পাবেন না। তবে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে এই নির্দেশিকা পুনর্বিবেচনার আর্জি নিয়ে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের কাছে যাওয়া হয়েছে।

Tags

Related Articles

Back to top button