দেশনিউজ

দিল্লি হিংসার মূলে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ, দাবি দিল্লি পুলিশের

Advertisement

দিল্লিঃ কিছুদিন ধরেই ফেব্রুয়ারিতে রাজধানীর বুকে সংঘটিত হওয়া হিংসাকাণ্ড নিয়ে একাধিক ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। এর মাঝেই হিংসার তদন্ত করে পুনরায় চার্জশিট দিয়েছিলো দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল। ১৭,৫০০ পাতার ওই বিশাল নথিতে ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে আরো উঠে আসে আরো ১৫ জনের নাম। পুলিশ সূত্রের খবর, ফেব্রুয়ারিতে হওয়া পূর্ব দিল্লির হিংসায় হাঙ্গামাকারীদের সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিল অভিযুক্তরা।

এমনকি ঝামেলা বাধানোর জন্য দুটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপও তৈরি করা হয়েছিল। এমনকি ওই গ্রুপ দিয়ে আবার সেলিমপুর ও জাফরাবাদে হিংসা ছড়িয়েছে। দিল্লি পুলিশের মতে ‘কট্টর হিন্দু একতা’ নামে ওই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ তৈরি করেই উত্তরপূর্ব দিল্লির সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করা হয়েছিল। জানা গিয়েছে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ওই গ্রুপটি তৈরি করা হয়।

অন্য দিকে গোকুলপুরীতে হাসিম আলি নামে এক জনের হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে চার্জশিটে ৯ জনের নাম করছে পুলিশ, ওই ৯ জনই এখন বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রয়েছে। নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে হওয়া এই জমায়েত এবং হিংসামূলক ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৫৩ জনের, আহত হয়েছেন প্রায় ২০০ জন। এমনকি কয়েক হাজার কোটি টাকার সম্পত্তিও নষ্ট হয়েছে। এমনকি এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে প্রাক্তন জেএনইউ ছাত্র উমর খালিদকেও।

বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইন (ইউএপিএ)-এর ধারায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভারতে আসায় তাঁর সামনে কালো পতাকা উড়িয়ে প্রতিবাদ জানান সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারীরা। শাহিনবাগে উস্কানিমূলক মন্তব্য থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সামনে প্রতিবাদে ইন্ধন দেওয়া একাধিক ঘটনায় অভিযুক্ত ছিলো উমর।

Tags

Related Articles

Back to top button