×
Today Trending Newsদেশনিউজ

LIVE UPDATE: আর কয়েক ঘন্টা পর আলীবাগে আছড়ে পড়বে ভয়ঙ্কর সাইক্লোন ‘নিসর্গ’

Advertisement

IMD-র বুলেটিন অনুসারে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ এখন আলীবাগের দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিম ভাগ থেকে ১৬৫ কিলোমিটার দূরে রয়েছে এবং মুম্বাইয়ের দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিম ভাগ থেকে ২১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। এই ঘূর্ণিঝড় আর কয়েক ঘন্টার মধ্যে মহারাষ্ট্র ও দক্ষিণ গুজরাট উপকূলের দিকে আছড়ে পড়বে। আজ দুপুরের দিকেই এই ঝড়ের আছড়ে পড়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে।

Advertisement

সাইক্লোন নিসর্গ লাইভ আপডেট:

বেলা ১১ টা – মুম্বাইয়ের দক্ষিণ ভাগে বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে।

Advertisement

সকাল ১০ টা ৫০ মিনিট- আর কয়েক ঘন্টার মধ্যেই এই ঘূর্ণিঝড় স্থলভাগে আছড়ে পড়বে। বর্তমানে মুম্বাইয়ের ভারসোভা বীচে জলোচ্ছাসের তীব্রতা বেড়েছে। এই ঘূর্ণিঝড় আলীবাগে দুপু ১ টা থেকে ৩ টের মধ্যে আছড়ে পড়ার প্রবল সম্ভাবনা আছে।

সকাল ১০ টা ৩৫ মিনিট- ইতিমধ্যেই মুম্বাইয়ে ঝড়ের জন্য প্রকৃতির পরিবর্তন হয়েছে।

সকাল ১০ টা ২০ মিনিট- আইএমডি জানিয়েছিযে, ঘন্টায় ঝড়ের গতিবেগ ১২০ কিলোমিটার হতে পারে।

সকাল ১০ টা ১০ মিনিট – বিএমসি জানিয়েছে, কোনো ব্যক্তি যদি রাস্তায় একান্তই বেরোতে চান। তাহলে অবশ্যই একটা হাতুড়ি নিয়ে বেরোতে বলেছেন। যাতে কোনো সমস্যার সৃষ্টি হলে কাঁচ ভেঙে বাইরে বেরোনো যায়।

সকাল ৯ টা  ১০ মিনিট – এই ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ ঘন্টায় ৬৫ কিলোমিটার ছিল, ধীরে ধীরে এই ঝড়ের গতিবেগ বেড়ে ১০০-১২০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় আছড়ে পড়তে পারে। আবহবিদদের মতে এই ঝড়ের গতিবেগ আরও বাড়বে।

সকাল ৮ টা ৩০ মিনিট- সাইক্লোন নিসর্গ আজ দুপুর  ১২ টাতে স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা আছে।

সকাল ৮ টা ২০ মিনিট- বর্তমানে এই ঘূর্ণিঝড় আলীবাগ থেকে ১৬৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে এবং মুম্বাই থেকে ২১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। আর কয়েক ঘন্টার মধ্যে উপকূলবর্তী এলাকা অর্থাৎ কর্ণাটক, গোয়া, মহারাষ্ট্র এবং গুজরাটে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

সকাল ৭ টা ৫০ মিনিট- মহারাষ্ট্রের  NDRF-র ২০  দলকে উদ্ধারকার্যে নিযুক্ত করা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে মুম্বাইয়ের ৮ টি দল, রায়গড়-র ৫ টি দল, পালঘরের ২ টি দল, থানের ২ টি দল, রত্নগিরি-র ২ টি দল, এবং সিন্ধুদুর্গের ১ টি দল।

সকাল ৭ টা ১০ মিনিট- NDRF-র দল উপকূলবর্তী এলাকাগুলি থেকে মানুষজনকে সরিয়ে নিরাপদ স্থানে নিয়ে এসেছেন। পালঘর প্রশাসনের তরফ থেকে ৮৬ টি আশ্রয়কেন্দ্র তৈরী করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button