বলিউডবিনোদন

Raj Kundra Pornography Case: ১৫০০ পাতার চার্জশিট জমা আদালতে, শিল্পার বিবৃতি নিয়ে চাঞ্চল্যকর

জুলাই মাস থেকে বিটাউন সরগরম রয়েছে পর্নোগ্রাফি কেস নিয়ে। অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামীর রাজ কুন্দ্রা এই পর্নোগ্রাফি কেসের মূল পান্ডা। দিন যত যাচ্ছে রাজের বিরুদ্ধে নতুন তথ্য আসছে পুলিশ আর জনসাধারণের কাছে৷ এবার এই মামলায় রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে ১৫০০ পাতার চার্জশিট দায়ের করা হয়েছে মুম্বাই আদালতে। পাশাপাশি চার্জশিটে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে শিল্পা শেট্টির বিবৃতি।

ওই বিবৃতি অনুযায়ী, অভিনেত্রী পুলিশকে জানিয়েছেন যে, ২০১৫ সালের রাজ কুন্দ্রা ‘ভিয়ান ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’ নামে এক সংস্থা তৈরি করেছিলেন। ২০১৫ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত রাজের স্ত্রী শিল্পা শেট্টি ওই কোম্পানির ডিরেক্টর ছিলেন। পাশাপাশি ওই কোম্পানিতে তাঁর শেয়ার ছিল ২৪.৫০ শতাংশ। এরপরে নিজস্ব কিছু ব্যক্তিগত কারণে অভিনেত্রী এই সংস্থার ডিরেক্টরের পদ থেকে পদত্যাগ করেন। অভিনেত্রী এও জানান এই বিবৃতিতে, তাঁর স্বামী রাজ এই সমস্ত কাজের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন তিনি এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানতে না।

১৫০০ পাতার চার্জশিটে লেখা আছে, ২০১৫ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৯ সালের ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আর্মস প্রাইমের ডিরেক্টর ছিলেন অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা। পুলিশ অফিসারদের মতে, প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ২০১৯ সালের আগস্ট মাস থেকে অক্টোবর পর্যন্ত গুগল থেকেই কোম্পানি লাভ করেছে প্রায় ২০ লক্ষ টাকা। একসঙ্গে অ্যাপেল থেকে পেয়েছে প্রায় ২ লক্ষ টাকা। তবে এরপর অক্টোবর থেকে গুগল থেকে কত টাকা পেয়েছে সে সম্পর্কে কোন তথ্য পুলিশ পাননি তবে এই ব্যপারে তদন্ত চলছে।

অন্যদিকে লন্ডনের কেনরিন কোম্পানি, যার ডিরেক্টর প্রদীপ বক্সী, তিনি রাজ কুন্দ্রার আত্মীয় হয়। তিনি কেনরিন কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন ২০০৫ সালের ৩ মার্চ। অন্যদিকে মুম্বই পুলিশ তদন্ত করে জানতে পেরেছে যে অক্টোবর ২০১৯ থেকে হটশটের রাজস্ব আয় শুরু হয়েছে। এছাড়াও রাজ এবং তাঁর পার্টনার সৌরভ মধ্যে যা কথোপকথন হয়েছে সেই সব রেকর্ড পুলিশ পেয়েছেন। সেই অনুযায়ী জানা গিয়েছে, ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে রাজ কুন্দ্রা মেল করে জানিয়েছিলেন যে, তাঁর এই কোম্পানি উন্নতি হচ্ছে না সেজন্য তিনি এই কোম্পানি ছেড়ে চলে যেতে চান। শুধু তাই নয় কোম্পানির শেয়ার করা টাকার ৯০ লক্ষ টাকা ফিরত চান। রাজ কুন্দ্রা যখন আর্মস প্রাইমে ডিরেক্টর পদে ছিলেন, তখন হটশট থেকে রাজস্ব পায় এই কোম্পানি এবং সেই টাকা কেনরিন কোম্পানির লয়েস ব্যাংকে জমা রাখতেম তিনি। রাজ ফেব্রুয়ারি থেকে ডিসেম্বর ২০১৯ সাল অব্দি পআর্মস প্রাইমের ডিরেক্টর ছিলেন বলে জানা যায়। 

Related Articles

Back to top button