×
বলিউডবিনোদন

আবারও বিয়ে করলেন সলমান খানের ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’-এর নায়িকা ভাগ্যশ্রী, জানালেন নিজের বেদনার কথা

Advertisement

‘ম্যায়নে প্যার কিয়া’ ভাগ্যশ্রীর প্রথম ফিল্ম দিয়ে জয় করেছিলেন মানুষের মন। এই ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন সালমান খান। যাইহোক, তার প্রথম চলচ্চিত্রের পরে, ভাগ্যশ্রী বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন এবং তিনি 1990 সালে ব্যবসায়ী হিমালয় দাসানির সাথে গাঁটছড়া বাঁধেন। বিয়ের 30 বছর পার করেছেন ভাগ্যশ্রী ও তার স্বামী এবং দুজনেই সুখী। অনেকদিন পর আবারও ছোট পর্দায় ফিরছেন ভাগ্যশ্রী, আমরা তাকে শীঘ্রই স্টার প্লাসের শো স্মার্ট জোডিতে দেখতে পারবো। সেই মঞ্চে নিজের মনের কষ্টের কথা জানিয়েছেন ভাগ্যশ্রী।

Advertisement

ইতিমধ্যে স্টার প্লাসের স্মার্ট জোডি শোটির একটি প্রোমো প্রকাশ পেয়েছে। এই প্রোমোতে ভাগ্যশ্রীকে আরও একবার বধূ রূপে দেখা যাচ্ছে। বধূ ভাগ্যশ্রী একটি লাল শাড়িতে পর্দায় ধরা দিয়েছেন, তাকে খুব সুন্দর দেখাচ্ছে এবং তার স্বামী হিমালয়ও একটি সাদা কুর্তা পরয়েছেন। তাদের দুজনকেই একে অপরের গলায় মালা পরাতে দেখা যাচ্ছে। ‘স্মার্ট জোডির সমস্ত খেলোয়াড়দের মাঝেই বেশ ধুমধাম করে দুজনকে বিয়ে করতে দেখা যাচ্ছে।কিন্তু একই প্রমোতে ভাগ্যশ্রী তার 30 বছর আগের বিয়ের স্মৃতি ও কথা মনে করেন এবং তার চোখে জল দেখা যায়।

ভাগ্যশ্রীকে মঞ্চে তার প্রেম-কাহিনী বলতে দেখা গিয়েছে, কিন্তু একই সাথে ভাগ্যশ্রী তার বিয়ের বাধা ও চুনতির কোথাও মনে রেখেছেন। মঞ্চে নিজের কষ্টের কথা জানাতে গিয়ে ভাগ্যশ্রী বলেন, তার বিয়েতে তারা (হিমালয়ের পরিবার) ছাড়া আর কেউ উপস্থিত ছিল না। সে যখন বাবা-মাকে বলেছিলেন যে হিমালয়কে বিয়ে করতে চায়, তারা রাজি হয়নি। পিতামাতার তাদের সন্তানদের জন্য স্বপ্ন থাকে, তবে কখনও কখনও সন্তানদেরও তাদের নিজস্ব স্বপ্ন থাকে এবং তাদেরও নিজের স্বপ্ন নিয়ে বাঁচতে দেওয়া উচিত, কারণ শেষ পর্যন্ত তারায় জীবনযাপন করবে।তার খুব রাগ হয় যখন মানুষ বা মিডিয়া বলে যে সে পালিয়ে বিয়ে করেছি, কারণ সে পালিয়ে বিয়ে করিননি।

Advertisement

আমরা জানতে পেরেছি যে ভাগ্যশ্রীর সাথে তার স্বামী হিমালয়ের প্রথম দেখা হয়েছিল স্কুলে এবং তারা দুজনেই একে অপরকে প্রথম সাক্ষাতেই হৃদয় দিয়েছিলেন, তবে ভাগ্যশ্রীর পরিবারের সদস্যরা তাদের সম্পর্ক নিয়ে খুশি ছিলেন না। তার পরিবার বিরোধিতা করেন তাদের সম্পর্ককে, ভাগ্যশ্রী হিমালয়কে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেয় এবং শুধুমাত্র ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা তাদের বিয়েতে যোগ দেয়। ভাগ্যশ্রীর ক্যারিয়ার সম্পর্কে কথা বলতে গেলে, ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া দিয়ে রাতারাতি তারকা হয়ে ওঠা এই অভিনেত্রী হিন্দি, তেলেগু, কন্নড়, বাংলা এবং মারাঠি সহ বেশ কয়েকটি ভাষার ছবিতে কাজ করেছেন। বলিউডের পাশাপাশি ভাগ্যশ্রী টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিরও একজন সদস্য ছিলেন।

Related Articles

Back to top button