বাংলা সিরিয়ালবিনোদন

স্লিভলেস টপে অপরাজিতা, স্বামীর কাঁধে মাথা রেখে ইনস্টারিল বানালেন পর্দার ‘লক্ষ্মী কাকিমা’

×
Advertisement

অপরাজিতা আঢ্য টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় প্রথম সারির অভিনেত্রী। তার হাসিতেই মুগ্ধ আট থেকে আশি। তার অভিনয় দক্ষতা রীতিমতো টেক্কা দেয় বর্তমানের তারকাদের। ছোটপর্দার পাশাপাশি বড়পর্দাতেও সমানতালে কাজ করে যাচ্ছেন এই অভিনেত্রী। বর্তমানে জি বাংলার পর্দায় ‘লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার’এ নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন তিনি। ইতিমধ্যেই এই ধারাবাহিক দর্শকমহলে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। খুব শীঘ্রই শিবপ্রসাদ আর নন্দিতা রায় পরিচালিত ‘বেলাশুরু’ মুক্তি পেতে চলেছে। যেখানে একটি মুখ্য চরিত্রে দেখা মিলবে অভিনেত্রীর।

Advertisement

মাত্র ১৯ বছর বয়সেই সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার অতনু হাজরার সাথে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন অভিনেত্রী, তাও বাড়ির লোকের অমতে গিয়ে। তবে শ্বশুরবাড়ির দিক দিয়ে পুরোপুরি সমর্থন পেয়েছিলেন তিনি। ভালোবেসে একসাথে স্বামী অতনুর সাথে কাটিয়ে দিলেন অনেকগুলো বছর। তবে লাইম লাইটে অভিনেত্রীর সাথে খুব একটা দেখা যায় না তাকে। তবে অভিনেত্রী নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় থেকে থেকেই নিজের পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি নিজের স্বামীর সাথে একাধিক ছবি শেয়ার করে থাকেন।

সম্প্রতি স্বামী অতনু হাজরার সাথে প্রথমবারের জন্য বানালেন ইনস্টারিল ভিডিও। মজার একটি ভিডিও বানিয়েছেন তিনি। স্ত্রীর আবদার এবার আর ফেলতে পারেননি তিনি। বউয়ের কাঁধে মাথা রেখেই বানিয়ে ফেললেন রিল ভিডিও। বর্তমানে যা রীতিমতো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়। রইল সেই ভিডিও।

Advertisement

সম্ভবত নিজেদের ঘরে বসেই এই রিল ভিডিওটি বানিয়েছেন তারা। ভিডিওটি বানানোর সময় একেবারে ঘরোয়া পোশাকেই দেখা মিলেছে তাদের। অভিনেত্রীর পরনে ছিল গোলাপি রঙের স্লিভলেস একটি পোশাক। অন্যদিকে তার স্বামী অতনুর পরনে ছিল শ্যাওলা রঙের হাফহাতা টি-শার্ট। তাদের মধ্যেকার গদগদ প্রেমের সম্পর্ক অজানা নয় কারোরই। তার ঝলক মিলেছে আবারও, এই ভিডিওর মাধ্যমেই। অভিনেত্রী এই ভিডিওটি শেয়ার করা মাত্রই, তা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে তার অনুরাগীদের মাঝে।

ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই রীতিমতো কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছে পর্দার লক্ষ্মী কাকিমাকে। নেটনাগরিকদের বেশ কয়েকজন তাকে সরাসরি কটাক্ষ করেছেন এই ভিডিওর কমেন্টবক্সেই। কেউ সরাসরি অভিনেত্রীকে বলেছেন, ইনস্টারিল বানানোর পাশাপাশি তিনি যেন এবার বাংলায় নারীদের উপর হওয়া অত্যাচারের দিকেও নজর দেন। কারণ বর্তমানে তিনি বাংলার মহিলা কমিশনের সদস্য।

Related Articles

Back to top button