বলিউডবিনোদন

Drug Case: আরিয়ানকে গাঁজা জোগাড় করে দিতে রাজি হয়েছিলেন অনন্যা! এনসিবিকে কি বললেন অভিনেত্রী

দিন যত যাচ্ছে বলিউডে এই মাদক চক্রের জট আরো জট বাঁধছে। এই হাইপ্রোফাইল মাদক মামলায় নতুন পদক্ষেপ নিল নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। মাদক চক্রের অন্যতম অপরাধী আরিয়ানের চ্যাটের সূত্র ধরে গতকাল তল্লাশি চালানো হল অভিনেতা চাঙ্কি পান্ডের কন্যা নবাগত বলি অভিনেত্রী অনন্যা পাণ্ডের বাড়িতে। অন্যনা যে খান পরিবারের ঘনিষ্ঠ তা সকলেরই জানা। তাই অনেকেই এনসিবির এই অভিযানের সঙ্গে আরিয়ানের মাদক মামলার সংযোগ রয়েছে খুঁজে পেয়েছেন।

ইতিমধ্যে অভিনেত্রীর বাড়ি থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে মোবাইল, ল্যাপটপ। বাবা চাঙ্কিকে সাথে নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে এনসিবি অফিসে পৌঁছলেন অনন্যা পাণ্ডে। এনসিবি সূত্রে খবর সমীর ওয়াংখেড়ের মুখোমুখি হয়েছিলেন অনন্যা। গতকাল বিকেল ৪.০৫ নাগাদ এনসিবি অফিসে পৌঁছান অনন্যা। তারপর ৬.১৫ নাগাদ তাঁকে বেরিয়ে আসতে দেখা যায় এনসিবির অফিস থেকে। তখনও মেয়ের পাশে দৃঢ় ভাবে ছিলেন চাঙ্কি। আজ শুক্রবার ফের এনসিবি-র অফিসে আসার সমন ধরানো হয়েছে অভিনেত্রীকে। 

মাদককাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে ফের শুক্রবার সকালে এনসিবির দফতরে পৌঁছে গিয়েছেন অনন্যা। আরিয়ানের সঙ্গে তাঁর কী কী কথা হয়? সেই বিষয়ে তাঁকে জিজ্ঞাস করা হয়। এই দিন মাদক নিয়েও অভিনেত্রীকে প্রশ্ন করা হয়। এইদিন দু’ঘণ্টারও তাঁকে জেরা করেন এনসিবি’র জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ে। পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, হোয়াটসঅ্যাপে প্রায়ই কথা হত। সেই চ্যাটে শাহরুখ পুত্রের সঙ্গে মাদক নিয়ে কথা বলেছেন অনন্যা পাণ্ডে। এমনকি তাঁকে মাদকের ব্যবস্থা করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন অনন্যা পাণ্ডে । 

আরো জানা যায়, এই বিষয়ে অভিনেত্রীকে সরাসরি আরো প্রশ্ন করা হলে এই প্রসঙ্গে তিনি পুরোপুরি এড়িয়ে যান । অভিনেত্রী জানান, মাদক নয় তার বদলে সিগারেট নিয়ে আরিয়ান খানের সঙ্গে কথা বলেন তিনি এবং গোটাটাই মজার ছলে। সূত্রের খবর, এগুলি ছাড়াও দুজনের এমন অনেক চ্যাট আছে যেখানে উভয়ই বিভিন্ন সময়ে মাদকদ্রব্য সম্পর্কে কথা বলছেন। বরাবরই চাঙ্কি পাণ্ডে ও শাহরুখ খানের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বেশ ভালো। ছোট থেকেই একে অপরের বন্ধু অনন্যা ও আরিয়ান আর সু্হানা। অনন্যাকে অ্যানি বলেই সম্বোধন করেন আরিয়ান । 

Related Articles

Back to top button