বলিউডবিনোদন

খ্যাতি, অর্থ, নাম, যশ সবকিছুকে বিদায়, ইসলামের পথে হাঁটলেন অভিনেত্রী সানা খান

Advertisement

জায়রা ওয়াসিমের পর লাইমলাইট থেকে সোজা ধর্মের পথে হাঁটলেন আরেক অভিনেত্রী। বলিউডের ঝাঁ চকচকে দুনিয়ায় মন বসেনি তাঁর। তাই বলিউডকে বিদাই জানালেন বিগ বস ৬ (Bigg Boss 6) এর প্রতিযোগী সানা খান। নিজেই নিজের ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে পোস্ট করে ঘোষণা করলেন তাঁর বলিউড ছাড়ার কথা।

ইনস্টাগ্রাম পোস্টে সানা লেখেন- “আমি আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ন অধ্যায়ের মধ্যে রয়েছি। আমি কয়েক বছর ধরে শোবিজের দুনিয়ায় জীবন কাটাচ্ছি, এবং এই সময় আমি প্রচুর খ্যাতি, সম্মান, অর্থ ও ভালোবাসা পেয়েছি আমার ভক্তদের কাছ থেকে- আমি কৃতজ্ঞ। তবে গত কয়েক দিন ধরে আমার মাথায় একটা চিন্তা-ভাবনা কাজ করছে, একজন কি শুধুই নিজের জন্য অর্থ এবং খ্যাতির খোঁজে জন্ম নেয়? এটা কি মানুষের নৈতিক দায়িত্ব নয়- যাঁরা দুঃস্থ, যাঁদের নিঃসম্বল তাঁদের সেবা-যত্ন করার? মানুষের কি এটা ভাবা উচিত নয় যে মরণের পারে কী হবে? আমরা তো যে কোনও সময়ই মরতে পারি, তাই না?”

ইংলিশ ও উর্দুতে লেখেন তিনি। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অন্যান্য ছবি ডিলিট করে দিয়েছেন অভিনেত্রী।

তাঁর পোস্টে সানা একেবারে শেষে লেখেন, “তাই আমি ঘোষণা করছি আজ থেকে আমি শোবিজের দুনিয়া, সেই জীবনশৈলীকে আমি বিদায় জানাচ্ছি। আজ থেকে আমি মানব সেবার জন্য কাজ করব এবং সৃষ্টিকর্তার নির্দেশ মেনে চলব। প্রত্যেক ভাইবোনকে আল্লাহর কাছে আমার জন্য প্রার্থনা করতে বলছি যাতে আমায় এই কাজে তিনি অনুমতি দেন এবং আমার সব ভুল-ত্রুটি মাফ করে উনি আমায় গ্রহণ করেন।”

জীবনের অর্থ কি শুধু নাম আর অর্থ কামানো? না। তাই নাম আর অর্থকে বিদাই জানালেন তিনি। সোজা ধর্মের পথেই হাটতে চাইলেন অভিনেত্রী। অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর অভিপ্রায় নিয়ে বলিউড ও লাইমলাইট ছাড়লেন সানা খান।

সানা খানের বক্তব্য, তাঁর ইসলাম ধর্ম তাঁকে শিখিয়েছে যে এই জীবনের আসল উদ্দেশ্য মৃত্যুর পরের জীবনকে সুখকর করে তোলা। তাই সৃষ্টিকর্তার নির্দেশমত জীবন কাটানো জরুরি। এবারে তাই ইসলামের পথে হাঁটা শুরু করেছেন অভিনেত্রী।

Tags

Related Articles

Back to top button