×
টলিউডবিনোদন

‘দিদিয়া’র সাথেই মিঠাইয়ের উচ্ছেবাবুর প্রেম!, টেলিপাড়ায় তুমুল চর্চায় নতুন জুটি

Advertisement

আদৃত রায় এই মুহূর্তে টেলিভিশন জগতের অন্যতম জনপ্রিয় একটি নাম। গত এক বছর ধরে জি বাংলার পর্দায় ‘মিঠাই’ ধারাবাহিকে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন অভিনেতা। পর্দায় দাদুর এই রাগী নাতির অভিনয় শুরু থেকেই মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। এই মুহূর্তে তিনি বং ক্রাশ। ধারাবাহিকের পর্দায় সৌমিতৃষা কুন্ডুর সাথে তার রসায়ন বেজায় পছন্দ দর্শকদেরও। এই মুহূর্তে ধারাবাহিকের পাশাপাশি পছন্দের টেলিভিশন জুটির মধ্যে তারা রয়েছেন এক নম্বরে।

Advertisement

গত বছরের শেষের দিকেই শোনা গিয়েছিল, নিজের দীর্ঘ দশ বছরের প্রেমিকার সাথে বিয়ে করতে চলেছেন তিনি। কিন্তু পরবর্তীকালে অভিনেতা নিজেই জানিয়ে দেন এই মুহূর্তে তিনি বিয়ে করছেন না। তবে এবার তার বিচ্ছেদের খবর প্রকাশ্যে এলো। শোনা গেছে, দীর্ঘ দশ বছরের প্রেমিকা সুপ্রিয়া মণ্ডলের সাথে বিচ্ছেদ ঘটেছে অভিনেতার। তাদের প্রেমের সম্পর্ক কয়েক মাস আগেই নাকি ভেঙে গিয়েছে! তবে সে বিষয়ে প্রকাশ্যে অভিনেতা মুখ খোলেননি। এই মুহূর্তে টেলিপাড়ায় আদৃতের সম্পর্ক নিয়ে চলছে জোর গুঞ্জন।

শোনা যাচ্ছে, অনস্ক্রিন দিদিয়া অর্থাৎ কৌশাম্বী চক্রবর্তীর সাথে শেষ কয়েকমাস ধরে ডেট করছেন আদৃত। মিঠাইয়ের সেটে অভিনয়ের সূত্র ধরেই আলাপ তাদের। বর্তমানে তারা একে অপরের খুব ভালো বন্ধু হয়ে উঠেছে। ধারাবাহিকে সিদ্ধার্থের পিসতুতো দিদির চরিত্রে অভিনয় করছেন কৌশাম্বী। ক্যামেরার সামনে দিদিয়া বলে ডাকলেও বাস্তবে তাদের সম্পর্ক একেবারেই দিদি-ভাইয়ের নয়। উল্লেখ্য, তাদের ঘনিষ্ঠতা কয়েকমাস ধরে নজর এড়ায়নি কারোরই। তাদের ঘনিষ্ঠতা নিয়ে চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে তাদের অনুরাগীদের মাঝেও। কেউই এখনো তাদের সম্পর্কের বিষয়টা ঠিকভাবে মেনে নিতে পারেননি।

Advertisement

তবে শোনা গিয়েছে, আদৃতের প্রাক্তন প্রেমিকা সুপ্রিয়া ইতিমধ্যেই অন্য একজনের সাথে আংটি বদল করেছেন। জানা যায়, সুপ্রিয়া আদৃতকে নিয়ে বেশ পজেসিভ ছিলেন। তাকে প্রায়ই দেখা যেত শুটিং ফ্লোরে। সম্ভবত এটাই ঠিক মেনে নিতে পারেননি অভিনেতা। সেই থেকেই তাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হতে থাকে। তবে এই মুহূর্তে কৌশাম্বীর সাথে আদৃতের সম্পর্ক নিয়ে টেলিপাড়ায় চলছে চাপা চর্চা। তবে নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে মুখ খোলেননি আদৃত। নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ক্যামেরার সামনে প্রকাশ্যে বিশেষ কথা বলতে নারাজ অভিনেতা।

Related Articles

Back to top button