বলিউডবিনোদনভাইরাল & ভিডিও

মন্দিরে বিয়ে করতে যাওয়ার সময় রূপান্তরকামীদের আশীর্বাদ নিচ্ছেন আদিত্য, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

Advertisement

সম্প্রতি হয়ে গেল আদিত্য নারায়ণ ও শ্বেতা আগরওয়ালের বিয়ে। আদিত্য-শ্বেতার বিয়ের কিছু ফটো ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। তার মধ্যে একটি ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে আদিত্য নারায়ণ রূপান্তরকামীদের আশীর্বাদ নিচ্ছেন। সূত্রের খবর, আদিত্যর বিয়ের স্থান ইস্কন মন্দিরে যাওয়ার সময় যানজটে আটকে যায় আদিত্যর গাড়ি। সেই সময় তাঁদের গাড়ি ঘিরে ধরেন ট্র‍্যাফিক সিগন্যালে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকজন রূপান্তরকামী। অন্যান্য মানুষদের মত আদিত্য তাঁদের চলে যেতে না বলে মাথা নিচু করে তাঁদের কাছে আশীর্বাদ প্রার্থনা করেন। এমনকি আদিত্যর পিতা উদিত নারায়ণ রূপান্তরকামীদের আর্থিক সাহায্য করেন। আদিত্যর এই নম্র স্বভাব নেটিজেনদের কাছে প্রশংসনীয় হয়েছে।

পয়লা ডিসেম্বর, আদিত্যর  বিয়ের দিনেই ছিল গায়ক উদিত নারায়ণের জন্মদিন। আদিত্য এই বিশেষ দিনটি বেছে নিয়েছিলেন তাঁর ও শ্বেতার জীবনের সবচেয়ে সুন্দর মুহূর্তের জন্য। আদিত্য-শ্বেতার বিয়েতে যথেষ্ট খুশি তাঁদের দুজনের পরিবার। মুম্বইয়ের ইস্কন মন্দিরে আদিত্য ও শ্বেতার আনুষ্ঠানিক ভাবে বিয়ে হয়। স্ত্রী দীপা নারায়ণের সঙ্গে রীতিমত নাচতে নাচতে ‘বারাত’ নিয়ে ইস্কন মন্দিরে উপস্থিত হন উদিত নারায়ণ। আদিত্য ও শ্বেতার বিয়ের ফটোতে দেখা যাচ্ছে, আদিত্যর পরনে রয়েছে অফ হোয়াইট রঙের শেরওয়ানি, তার সাথে মানানসই পাগড়ি ও কুন্দনের গয়না। বিয়ের সাজে ‘কুল’ লুক আনার জন্য আদিত্য চোখে সানগ্লাস পরেছিলেন। আদিত্যর পোশাকের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে তৈরি হয়েছিল শ্বেতার পোশাক। শ্বেতার পরনে ছিল অফ হোয়াইট রঙের লেহেঙ্গা চোলি। তার সাথে মানানসই করে শ্বেতা পরেছিলেন পোলকির গয়না। করোনা বিধি মেনে সম্পন্ন হয় আদিত্য ও শ্বেতার বিয়ে। এই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন মাত্র পঞ্চাশ জন অতিথি। রবিবার ছিল মেহেন্দি ও সোমবার ছিল ‘হলদি কি রসম’।

2010 সালে আদিত্য ও শ্বেতা অভিনীত ফিল্ম ‘শাপিত’ মুক্তি পায়। এই ফিল্মটি বক্স অফিসে সাফল্য না পেলেও ফিল্মের সেট থেকে শুরু হয় আদিত্য ও শ্বেতার প্রেম। তবে নিজেদের সম্পর্ককে কোনোদিন স্পটলাইটে নিয়ে আসেননি আদিত্য ও শ্বেতা। আদিত্য নিজের বিয়ের ঘোষণা করার সময় শ্বেতার কথা জানতে পারে মিডিয়া।

Tags

Related Articles

Back to top button