ভাইরাল & ভিডিও

Viral: প্রকাণ্ড সিংহকে কোলে নিয়ে বাড়ি ফিরছে যুবতী, দেখে শিউরে উঠেছে নেটজনতা

আজকালকার দিনে সবার বাড়িতেই কমবেশি একটা করে পোষ্য থাকে। তাকে নিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে ঘুরতেও দেখা যায় সকলকে। নিজের পোষ্যকে কোলে নিয়ে ঘুরে বেড়ান অনেকেই। প্রয়োজনে তাদের বকাবকিও করেন তারা। তবে কুয়েতের রাস্তায় যা ঘটলো তা দেখে রীতিমতো আঁতকে উঠেছেন সকলে। নেটমাধ্যমে ভিডিও শেয়ার হতেই ঝড়ের গতিতে ভাইরাল।

সম্প্রতি টুইটারের মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা এখন নেটমাধ্যমের সমস্ত প্ল্যাটফর্মে ভাইরাল। কুয়েতের ঘটনা এটি। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে এক মহিলাকে দেখা গিয়েছে বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়া নিজের পোষ্যকে জাপটে ধরে নিয়ে যেতে। তবে ঘটনাটি শুনতে সাধারণ হলেও বিষয়টি কিন্তু একেবারেই তা নয়। আসলে ঐ মহিলার কোলে ছিল এক প্রমান সাইজের সিংহ। রীতিমত জোর করেই নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তাকে, তা ভিডিওটি দেখেই স্পষ্ট। অনেক চেষ্টা করেও ঐ মহিলার শক্ত বাহুবন্ধন ছাড়াতে পারেনি সিংহটি। জানা গিয়েছে, কুয়েতে ঐ মহিলা এবং তার বাবার কাছে থাকে সে। কোন কারণে সে হঠাৎ করেই পালিয়ে গিয়েছিল বাড়ি থেকে। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। জানা গেছে, তবে পুলিশ আসার আগেই ঐ সিংহটিকে খুঁজে পেয়ে তার মালকিন জাপটে ধরে রীতিমতো জোর করেই নিয়ে আসেন।

পরে পুলিশ এসে তাদের সাহায্য করেন সিংহটিকে ঠিকঠাক ভাবে রাখতে। তবে কুয়েতের প্রকাশ্য রাস্তায় মাঝরাতে এমন ঘটনা দেখে ক্যামেরাবন্দি করেছেন ঐ মহিলার এক প্রতিবেশী। এই ক্যামেরাবন্দি করা দৃশ্য নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন তিনি। আর তারপর থেকেই রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ভিডিওটি, আর সেটাই স্বাভাবিক। এমন ভিডিও দেখে নেটিজেনদের অধিকাংশ রীতিমতো শিউরে উঠছেন। তবে এই ঘটনাটি সত্যি, এর সত্যতা যাচাই করেছেন কুয়েতের এনভাইরনমেন্টাল পুলিশ।

তবে কুয়েতে বাঘ কিংবা সিংহের মতো প্রাণীদের পোষ্য হিসেবে বাড়িতে রাখা আইনত অপরাধ। কিন্তু তাও ঐ শহরের অনেকেই বাঘ কিংবা সিংহকে পোষ্য হিসাবে রাখেন নিজেদের বাড়িতে। তাদের বিরুদ্ধে সেভাবে কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয় না। এক্ষেত্রে ঐ মহিলা কিংবা তার বাবার বিরুদ্ধে আইনত কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে কিনা! তা জানা সম্ভব হয়নি। তবে রাস্তায় হঠাৎ করে সিংহের মত বাড়ির কোন পোষ্য যদি বেরিয়ে আসে, তাহলে তা অন্যদের জন্য বেশ ভয়ের তা বলাই বাহুল্য।

Related Articles

Back to top button